বার্তাবাংলা ডেস্ক »

41958_afjalবার্তাবাংলা ডেস্ক ::ভারতে সংসদে হামলায় অভিযুক্ত আফজল গুরুর ফাঁসি কার্যকর হয়েছে। আজ শনিবার সকাল ৮টা নাগাদ দিল্লির  তিহার জেলে ফাঁসি দেওয়া হয় ২০০১ সালে সংসদ হামলার মূল অভিযুক্ত আফজল গুরুকে। ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুশীল কুমার শিন্দে এই কথা জানিয়েছেন। তিহার জেলের বাইরে ১০০০ পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। কারফিউ জারি করা হয়েছে গোটা কাশ্মীর উপত্যকা জুড়ে। কড়া নিরাপত্তার বেষ্টনীতে ঘিরে ফেলা হয়েছে দিল্লিকেও। অন্যদিকে, হুরিয়ত নেতারা ইতিমধ্যেই জানিয়েছেন, এই ঘটনার পর তাঁরা মোটেও চুপ করে থাকবেন না। বিজেপির তরফ থেকে কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানানো হয়েছে। ২০০৪ সালে আফজল গুরুকে আগেই ফাঁসির সাজা শুনিয়েছিল দেশের শীর্ষ আদালত। কিন্তু আফজল গুরুর স্ত্রী প্রেসিডেন্টের কাছে তার প্রাণভিার আর্জি করেন। তারপর থেকে এতদিন পর্যন্ত আফজল গুরুর ফাঁসির সিদ্ধান্তটি স্থগিত ছিল। প্রেসিডেন্ট ভবনের মুখপাত্র ভেনু  রাজাময় জানিয়েছেন গত কয়েকদিন আগেই সেই আর্জি খারিজ করে দেন প্রেসিডেন্ট। ২০০১ সালে পাঁচজন সশস্ত্র জঙ্গী সংসদ আক্রমণ করে। এই হামলায় ৯জন প্রাণ হারান। যাঁদের মধ্যে অধিকাংশই সংসদের নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন। নিরাপত্তারীদের সঙ্গে গুলি যুদ্ধে ওই পাঁচ জঙ্গীই মারা যায়। এর কিছুদিন পর এই হামলা সংগঠিত করার অপরাধে গ্রেপ্তার করা হয় আফজল গুরুকে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »