বার্তাবাংলা ডেস্ক »

Screenshot_5বার্তাবাংলা ডেস্ক ::  ২০ নভেম্বর বিশ্ব শিশুদিবসে শিশুদের অধিকার নিয়ে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে প্রচারাভিযানের অংশ হিসেবে সারাদেশ থেকে প্রায় ১০ হাজার স্বেচ্ছাসেবক রাস্তায় নামবে। তারা রাস্তায় থেকে প্রতি পথচারীকে শিশু অধিকার নিয়ে কথা বলবেন। প্রতি গাড়ির যাত্রীরা যাতে শিশুদিবসের ম্যাসেসটি পায় সেজন্য রাজধানীর রাস্তার ১৫টি ট্রাফিক সিগনালে স্বেচ্ছাসেবকরা অবস্থান করবে।

সোমবার বিকেলে বিশ্ব শিশুদিবস উদযাপন পূর্ব এক সংবাদ সম্মেলনে এমন ঘোষণা দেন জাগো ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা করভি রাখসান্দ।

এ সময় তিনি বলেন, ‘শিক্ষায় বিনিয়োগ’ এ স্লোগানকে সামনে রেখে ২৮টি জেলায় এবার প্রচারণা শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে ১০টি জেলায় তা সম্পন্ন হয়েছে। এছাড়া ১৮টি জেলার মধ্যে ঢাকা, গাজীপুর, কুমিল্লা, বগুড়া, চাঁদপুর, নোয়াখালী, চট্টগ্রাম, রংপুর, নারায়ণগঞ্জ, দিনাজপুর, কুড়িগ্রাম, ঠাকুরগাঁও, ঝালকাঠি, ঝিনাইদহ এবং মৌলভীবাজারে ২০ নভেম্বর বিশ্ব শিশুদিবস একযোগে পালিত হবে।’

এদিন সব স্বেচ্ছাসেবক পথে পথে থাকবেন এবং প্রতিটি মানুষকে শিশুদের শিক্ষার জন্য সচেতনতা সৃষ্টি করবে।

এছাড়াও ওইদিন পাঁচশ শিশুকে নিয়ে ঢাকার বনানী মাঠে দিনব্যাপী আনন্দ উৎসব পালিত হবে।  পাশাপাশি প্রতিটি শিশুর জন্য থাকবে ফ্রি মেডিকেল চেকআপ, সারাদিন খাবার ব্যবস্থা, নাগরদোলা এবং মঞ্চ। মঞ্চে তারা গাইবে-নাচবে এবং আনন্দ করবে। দেশের অন্যান্য জেলার পথ ও অনাথ শিশুদের বিভিন্ন বিনোদন পার্কে নিয়ে যাওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

এ সময় বক্তব্য দেন, জাগো ফাউন্ডেশনের যুব প্রতিনিধি ও এভারেস্ট বিজয়ী ওয়াসফিয়া নাজরীন।
তিনি বলেন, ‘একটি জাতিকে উন্নতির শিখরে নিতে হলে শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই। তাই প্রতিটি শিশুর যাতে শিক্ষা নিশ্চিত করা যায় তার জন্য সবার মাঝে সচেতনতা বাড়াতে হবে। কে বলে আমরা দরিদ্র? যদি আমরা দেশের সবাই শিক্ষিত হই তবে দেশ আর গরীব থাকবে না।’

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন আমেরিকা সেন্টার ঢাকার সাংস্কৃতিক কর্মকর্তা কেলভিন হায়েস, ট্রান্সকম ফুড লিমিডেটের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আক্কু চৌধুরী প্রমুখ।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »