বার্তাবাংলা ডেস্ক »

womenবার্তাবাংলা ডেস্ক :: বন্ধ্যাত্বকরণের পরই প্রাণ হারালেন ৮ নারী। আশঙ্কাজনক অবস্থায় মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন আরেও ৩২ জন। এ ঘটনায় ইতিমধ্যেই চারজনকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের ছত্তীসগঢ়ের বিলাসপুরের এক সরকারি হাসপাতালে। বন্ধ্যাত্বকরণকালে চিকিৎসার গাফিলতিই এই অঘটনের কারণ বলে মনে করা হচ্ছে। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

গত ৮ নভেম্বর ওই হাসপাতালে বন্ধ্যাত্বকরণের এই শিবিরের আয়োজন করা হয়। শিবিরে এসেছিলেন আশপাশের ৪০টি গ্রাম থেকে ৮৩ জন নারী। সরকারি নিয়ম অনুযায়ী, বন্ধ্যাত্বকরণের জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ মহিলা পিছু ১ হাজার ৪০০ টাকা করে দিয়েছিলেন। অস্ত্রোপচার ভাল ভাবে মিটে যাওয়ার পর তাদের প্রত্যেককে ওষুধ দিয়ে ছেড়েও দেন চিকিৎসকেরা।

সমস্যা শুরু হয় অস্ত্রোপচারের কয়েক ঘণ্টা পর থেকেই। বাড়ি ফিরে যেতেই বমি, পেটে যন্ত্রণা এবং জ্বরের মতো উপসর্গ দেখা দেয়। সঙ্গে সঙ্গেই বিলাসপুর জেলা হাসপাতালে নিয়ে আসা হয় তাদের। সেখানেই সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত আট জন মারা যান। এখনও ৩৮ জন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। ৭ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ছত্তীসগঢ় ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল সায়েন্সেস (সিআইএমএস)-এ পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »