বার্তাবাংলা ডেস্ক »

sishuবার্তাবাংলা রিপোর্ট :: বিয়ের দুবছর পর প্রথম সন্তান হবে। তাই স্বামী-স্ত্রী দুজনই আনন্দে আত্মহারা। একটি নয় জমজ সন্তান হবে চিকিৎসকদের এমন খবরে আনন্দের মাত্রাটা বেড়ে গেল আরো। পাবনার আটঘরিয়া উপজেলার কৃষক আরিফুল ইসলাম তার স্ত্রীর চিকিৎসা করিয়েছেন সাধ্যমত।

বহু প্রতিক্ষার অবসান গঠিয়ে অবশেষে ৪ নভেম্বর রাজশাহীর পদ্মা ক্লিনিকে আরিফের স্ত্রী দুটি সন্তানের জন্ম দেন। ফুটফুটে দুটি মেয়ে। নিপা-শিপা নামও রাখা হয়েছে। কিন্তু সন্তান লাভের আনন্দ রূপান্তরিত হয় বিষাদে। দুটি শিশুর পেটের অংশ মায়ের গর্ভ থেকেই জোড়া লাগানো।

কিন্তু কৃষক আরিফ চান মেয়ে দুটির স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে দিতে। তাই উন্নত চিকিৎসার জন্য দুই সন্তানকে নিয়ে পাবনা ছেড়ে তিনি এখন ঢাকার এক হাসপাতাল থেকে আরেক হাসপাতাল ছুটে বেড়াচ্ছেন। অপর দিকে স্ত্রী ইভা চিকিৎসা নিচ্ছেন রাজশাহীতে। তাই আরিফকে দুদিকেই ছুটতে হচ্ছে হন্তদন্ত হয়ে।

এদিকে ঢাকার শিশু হাসপাতালে সিট খালি নেই, ছুটলেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

এ নিয়ে আরিফুল ইসলামের সঙ্গে কথা হলে তিনি জানান, চিকিৎসকরা জানিয়েছেন অনেক পরীক্ষা নিরীক্ষার প্রয়োজন। তাদের শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণের পর সিদ্ধান্ত নেয়া যাবে।

সোমবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থানান্তর করা হয়েছে দুই কন্যা শিশুকে। হাসপাতালের সি ব্লকের দোতলায় নবজাতক বিভাগের আইসিইউতে চলছে তাদের চিকিৎসা। বাবা আরিফের কণ্ঠে দুই মেয়েকে বাঁচানোর আকুতি-মিনতি।

কৃষক আরিফ মাত্র ২ হাজার টাকা নিয়ে ঢাকায় এসেছেন। কিন্তু শিশু দুটির চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন অনেক টাকা। এখন কী করবেন?  উপায়-অন্ত না দেখে সাহায্য চাইলেন মানুষের কাছে। কিন্তু কীভাবে পাবেন সাহায্য তার যে একটা ব্যাংক একাউন্টও নেই।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »