ব্রাদারহুডের নিন্দা, রাষ্ট্রে জরুরী অবস্থা জারি

বার্তাবাংলা ডেস্ক ::  মিশরে নিষিদ্ধ ঘোষিত রাজনৈতিক সংগঠন মুসলিম ব্রাদারহুড দেশটির সিনাই অঞ্চলে সংঘটিত আত্মঘাতি ও রকেট-মর্টারঘটিত ভয়াবহ বোমাহামলার প্রতি তীব্র নিন্দা জানিয়েছে। শুক্রবারের হামলার ঘটনায় ৩৩ জন সামরিক সদস্য নিহত হন।

মুসলিম ব্রাদারহুড এ ঘটনার জন্যে রাষ্ট্রপতি আব্দেল ফাত্তাহ আল সিসির ওপর দোষারোপ করেছে। তাদের ভাষ্য, সিসি নিরাপত্তাবিধানে ব্যর্থ হওয়ার কারণে এ হামলার দায় তারই।

রাজনৈতিক সংগঠন মুসলিম ব্রাদারহুডের নিষিদ্ধি এবং তাদের বিচারের আওতায় এনে গণযাবজ্জীবন ও গণফাঁসির রায়ের একাধিক রেকর্ড করে সিসি শাসিত সামরিক প্রশাসন।

তবে পরবর্তী সময়ে গণতান্ত্রিক নির্বাচনের মাধ্যমে রাজনৈতিক মঞ্চে পোশাক পাল্টে পুনরায় সিসি মিশরের ক্ষমতায় আরোহন করেন। ব্রাদারহুডের নেতা মুহাম্মাদ মুরসিকে উৎখাতের মাধ্যমে তার ক্ষমতারোহনের কারণে ব্রাদারহুড-সিসি পরষ্পরের রাজনৈতিক শত্রুতে পরিণত।

মুসলিম ব্রাদারহুড তাদের প্রকাশিত লিখিত বার্তায় প্রকাশ করে, কোন মিশরিয়ের রক্ত ঝরানো তারা অপবিত্র জ্ঞান করে। যে কারণে এ হামলা তাদের কাছে সম্পূর্ণরূপে নিন্দনীয়। এর পেছনে দায়ী করা চলে ‘জান্তা সরকারকে’, তাদের সামাজিক, অর্থনৈতিক নিরাপত্তা খাতে চরম ব্যর্থতা জনগণ স্বচক্ষে দেখছে।

ব্রাদারহুড নিহতদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানায়।

এদিকে মিশর সরকার সিনাইয়ে হামলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তা ব্যাপকভাবে জোরদার করেছে। রাষ্ট্রে তিন মাসের জরুরী অবস্থা জারি করা হয়েছে শেষ খবর পাওয়া অব্দি।