বিএনপির হুমকিতে আওয়ামী লীগ বিচলিত নয়

বার্তাবাংলা রিপোর্ট :: বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের আন্দোলনের হুমকিকে কাগুজে বাঘের হুঙ্কার হিসেবে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন, ‘তাদের হুমকিতে আওয়ামী লীগ বিচলিত নয়।’

বৃহস্পতিবার ঠাকুরগাঁও জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি একথা বলেন।

ক্ষমতাসীন দলের শীর্ষ এ নেতা এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘গত ৫ জানুয়ারি নির্বাচনে না এসে নেতাকর্মীদের মধ্যে যে হতাশা তৈরি হয়েছে তা দূর করতেই তারা আন্দোলনের হুমকি দিচ্ছে। তবে তাদের হুমকি কাগুজে বাঘের হুঙ্কার ছাড়া আর কোনো কিছুই না।’

প্রধানমন্ত্রীকে ক্ষমতাচ্যুত করার বিএনপির হুমকি প্রসঙ্গে সৈয়দ আশরাফ বলেন, ‘বৈধভাবে শেখ হাসিনাকে ক্ষমতা থেকে সরানোর কোনো সুযোগ নেই। শেখ হাসিনা সরকারকে ক্ষমতা থেকে সরাতে হলে অবৈধভাবে সরাতে হবে। আর তা প্রতিরোধ করতে দলীয় নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।’

ঠাকুরগাঁও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রমেশ চন্দ্র সেন এমপির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন দলের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ আওয়ামী লীগ নেতাদের হত্যার ষড়যন্ত্র চলছে। যার কিছু তথ্য গোয়েন্দা সংস্থার কাছেও এসেছে।’

বিএনপি ও জামায়াতের প্রতি ইঙ্গিত করে হানিফ বলেন, ‘সাধারণ মানুষ তাদের সঙ্গে নেই। এ জন্য তারা ষড়যন্ত্রের পথ বেছে নিয়েছে।’

২০ দলীয় নেত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে গ্রেপ্তারের ষড়যন্ত্র চলছে দাবি করে সম্প্রতি দলটির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিবে দেয়া বক্তব্য প্রসঙ্গ হানিফ বলেন, ‘নতুন করে তো কারো বিরুদ্ধে কোনো মামলা হয়নি। তাহলে হঠাৎ করে তিনি এমন কথা কেন বলছেন। এটা কোনো সাদা কথা নয়। নিশ্চয় এর পেছনে কোনো ষড়যন্ত্র রয়েছে। সাধারণ মানুষের কাছ থেকে অনুকম্পা নেয়ার জন্যই বিএনপি এমন কথা বলছে।’

মুক্তিযুদ্ধে বাম নেতাদের ভূমিকা তুলে ধরে হানিফ বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের সময় বাম সংগঠকরা স্বাধীনতার বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছিলেন। মির্জা ফখরুল ইসলামরা মুক্তিযুদ্ধ করে নাই। তারা বাম সংগঠন করেছিল। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধ হয়েছিল।’

জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক ওই সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন- আওয়মী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য সতীশ চন্দ্র রায়, সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, র আম উবায়দুল মোক্তাদির এমপি, দবিরুল ইসলাম এমপি, সেলিনা জাহান লিটা এমপি, সাবেক এমপি ইমদাদুল হক, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট মকবুল হোসেন বাবু, সাধারণ সম্পাদক সাদেক কুরাইশী প্রমুখ।

বিকেলে জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের ভোট গ্রহণ চলে।