চট্টগ্রামের ৬০টি গ্রামে শনিবার ঈদুল আজহা

বার্তাবাংলা রিপোর্ট :: সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে দক্ষিণ চট্টগ্রামের ৬০টি গ্রামে শনিবার পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে। চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলার জাহাঁগিরিয়া শাহ্সুফি মমতাজিয়া দরবার শরীফ ও মির্জাখিল দরবার শরীফের অনুসারীরা প্রতিবছরের মতো শনিবার ঈদুল আজহার নামাজ আদায় করবেন। পরে পশু কোরবানি দিয়ে দেশের অন্যান্য অঞ্চলের চেয়ে একদিন আগেই ঈদ উৎসব উদযাপন করবেন। সৌদি আরবে হজ পালনের পরের দিন এই দরবারের অনুসারীরা বিগত আড়াইশ’ বছরের অধিক সময় ধরে ঈদুল আজহা উৎযাপন করে আসছেন। এ উপলক্ষ্যে চন্দনাইশস্থ জাহাঁগিরিয়া শাহ্সুফি মমতাজিয়া দরবার শরীফঈদগাহ ময়দানে দরবারের সাজ্জাদানশীন আলহাজ মাওলানা সৈয়্যদ মোহাম্মদ আলী (মা.) এর ইমামতিতে ঈদুল আজহার জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়াও মমতাজিয়া দরবার শরীফ ও মির্জাখিল দরবার শরীফ অনুসারীরা একই সময়ে ঈদের নামাজ শেষে কোরবানি দিবেন। দক্ষিণ চট্টগ্রামের যেসব গ্রামে ঈদ উদযাপন করা হবে-চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলার পশ্চিম এলাহাবাদ, উত্তর কাঞ্চন নগন, জুনিগোনা, আববাসপাড়া, মাঝেরপাড়া, স্টেশন, দিঘিরপাড়, কুন্দুপাড়া, কেশুয়া, মোহাম্মদপুর, হারালা, সাতবাড়িয়া, উত্তর হাশিমপুর, সৈয়দাবাদ, খুনিয়ারপাড়া, বাঁশখালী উপজেলার জলদী, গুনাগড়ি, কালিপুর, গন্ডামারার মিরিঞ্জিরিতলা, সনুয়া, সাধনপুর, আনোয়ারা উপজেলার তৈলারদ্বীপ, বাথুয়া, বারখাইন, বোয়ালখালী উপজেলার চরনদ্বীপ, খরণদ্বীপ, লোহাগড়া উপজেলার বড়হাতিয়া, আমিরাবাদ, চুনতি, পুটিবিলা, উত্তর সুখছড়ি, আধুনগর, সাতকানিয়া উপজেলার মির্জাখিল, বাংলাবাজার, মাইশামুড়া, খোয়াছপাড়া, বাজালিয়া, কাঞ্চনা, গাঠিয়াডাঙ্গা, পুরানগর, মালেয়াবাদ গ্রামসহ সীতাকুন্ড, সন্ধীপ, মীরসরাই, হাটহাজারী, উখিয়া, বান্দরবান ও আলীকদম উপজেলার কয়েকটি গ্রাম।