পাকিস্তানকেই ‘যুৎসই পরিবেশ’ তৈরি করতে হবে

বার্তাবাংলা রিপোর্ট :: ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, তিনি পাকিস্তানের সঙ্গে শান্তি আলোচনা চান। তবে সেই আলোচনার জন্য অবশ্যই পাকিস্তানকে ‘যুৎসই পরিবেশ’ তৈরি করতে হবে।

শনিবার জাতিসংঘে সাধারণ পরিষদে ভাষণ দিতে গিয়ে তিনি একথা বলেন।

ভারত এবং পাকিস্তান চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দেশ। ১৯৪৭ সালে স্বাধীন হবার পর তারা তিনটি যুদ্ধে অবর্তীর্ণ হয়েছে। এর মধ্যে দু’টি যুদ্ধ হয়েছে বিরোধপূর্ণ কাশ্মিরকে নিয়ে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ কড়া সমালোচনা করার পর মোদি তার ভাষণে শান্তি আলোচনার কথা বললেন।

নিউইয়র্কে পাকিস্তানের সঙ্গে দিপক্ষীয় বৈঠক বাতিল করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নওয়া্জ শরীফ।

নিউইয়র্কে বাংলাদেশসহ প্রতিবেশি দেশগুলোর সরকার প্রধানদের সঙ্গে বৈঠকের কর্মসূচি রাখলেও পাকিস্তানের সঙ্গে বৈঠক বাতিল করেন তিনি।

নরেন্দ্র মোদি নিউইয়র্কে যাবার আগে সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, দেশে নওয়াজ শরীফ বিরোধীদলের কঠোর আন্দোলন মোকাবেলা করছেন। শান্তির ব্যাপারে কোন কিছু স্পষ্ট করে বলা এখন তার পক্ষে সম্ভব হবে না।

নরেন্দ্র মোদি বলেন, আলোচনা শুরুর জন্য প্রয়োজন সন্ত্রাসমুক্ত পরিবেশ।

ভারত অভিযোগ করে আসছে নিরাপত্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়তে পাকিস্তান উগ্রপন্থিদের সহায়তা দিচ্ছে।

প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার আমন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এখন যুক্তরাষ্ট্র সফর করছেন।

সাধারণ পরিষদের ভাষণ দেয়ার পর মোদির ওয়াশিংটন যাওয়ার কথা রয়েছে। সেখানে তিনি বারাক ওবামার সঙ্গে বৈঠকে বসবেন।

নিউইয়র্কের একটি ফেডারেল আদালত ২০০২ সালের গুজরাট দাঙ্গার জন্য মোদির বিরুদ্ধে সমন জারি করেছে। সমন মাথায় নিয়েই মোদি শুক্রবার নিউইর্য়কে পৌঁছান।