বার্তাবাংলা ডেস্ক »

Dating App

rikhsha1বার্তাবাংলা ডেস্ক :: রিকশার শহর ঢাকা। অলি-গলি রাজপথ হয়ে রিকশা চলে সর্পিল রাস্তা ধরে। কখনো দীর্ঘ জ্যাম, কখনো রিকশার চেইন ছিড়ে যাওয়ার বিড়ম্বনার সঙ্গে শহরবাসী কমবেশি সবাই পরিচিত। কিন্তু ব্যাপারটা যদি এমন হয়, রিকশায় আপনি জ্যামে আটকে গেছেন। চিন্তা নেই রিকশা উড়তে উড়তে আপনাকে নিয়ে গেল কাঙ্ক্ষিত গন্তব্যে, তাহলে কেমন হবে? ঢাকা শহরে যারা রিকশায় চড়তে পছন্দ করেন, তারা সবাই একবার হলেও রিকশা উড়ে চলার বিষয়টি ভেবেছেন কল্পকাহিনীর আদলে।

তবে আপনি অথবা আমি উড়ুক্কু রিকশা নিয়ে কল্পকাহিনী বানালেও লন্ডনের জন ফোডেন ও ইয়ানিক রিড কল্পকাহিনীর মধ্যে বসে থাকেননি। তারা সত্যি সত্যিই উড়ুক্কু রিকশা বানিয়ে রীতিমতো সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। লন্ডনের উপকূলবর্তী এলাকায় এক্সপ্লোরএয়ার নামে একটি কারখানা চালান এই দুইজন। দীর্ঘদিন ধরেই তারা প্রাচ্যের রিকশার সঙ্গে মোটরযুক্ত করে কিছু একটা বানানোর চেষ্টা করছিলেন। সর্বশেষ চলতি বছরের মাঝামাঝি তারা সফল হন উড়ুক্কু রিকশা বানাতে। আর তাদের উদ্ভাবিত এই রিকশার নাম দেয়া হয়েছে ‘পারাভেলো’।

তবে এই উড়ুক্কু রিকশা বানানোর প্রক্রিয়াটা তাদের জন্য মোটেও সহজসাধ্য ছিল না। একদিকে ছিল অর্থনৈতিক টানাপোড়েন অন্যদিকে সম্পূর্ণ নতুন একটা জিনিস বানানোর মানসিক চাপ। তাইতো ফোডেন বলেন, ‘অবশ্যই এসব জিনিস বানানোর বিষয়টা সহজ নয়। কারণ এধরণের কাজ করতে গেলে অনেক টাকার দরকার।’

পারাভেলোতে রয়েছে একটি প্যারাসুট এবং হালকা মোটরচালিত প্যারাগ্লাইডার। এক্সপ্লোরএয়ার প্রতিষ্ঠানটিকে প্যারাগ্লাইডার বানিয়ে সহায়তা করেছে ব্রিটিশ প্যারামিটার প্রস্তুতকারক কোম্পানি প্যারাজেট। ২০১৩ সালে প্রতিষ্ঠানটি সফলভাবে রিকশার জন্য প্যারাগ্লাইডার বানানো শেষ করে।

পুরো রিকশাটির ওজন হবে প্রায় ৫০ কেজি। তবে সবচেয়ে বড় সুবধিা হলো, রিকশাটি যেকোনো অবস্থায় ভাজ করে রাখা যায়। মনে করুন আপনি এমন এক জায়গায় যাচ্ছেন যেখানে গোটা রিকশাটি রাখা সম্ভব নয়, তখন চাইলে আপনি সহজেই রিকশাটিকে ভাজ করে সল্প জায়গার মধ্যে রাখতে পারবেন।

তবে এই উড়ুক্কু রিকশাটির মূল্য কিন্তু মোটেও কম নয়। এক একটি পারাভেলোর দাম পরবে প্রায় ১৬ হাজার ৩০০ ডলার। আপতত অনেক বেশি দাম মনে হলেও এই উড়ুক্কু রিকশা যেহেতু আপনার অনেক সময় বাঁচিয়ে দেবে, তাই সময়ের মূল্য তো একটু চড়া দাম দিয়েই কিনতে হয়।

Dating App
শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »