শখ-নিলয়ের অভিমান! » Leading News Portal : BartaBangla.com

বার্তাবাংলা ডেস্ক »

shokh niloyবার্তাবাংলা রিপোর্ট :: নিজেদের ফেসবুকের রিলেশনশিপ স্ট্যাটাসে ‘ইন অ্যা রিলেশনশিপ উইথ’ থেকে ‘সিঙ্গেল’-এ ফিরে এসেছেন শখ ও নিলয়। এমনকি এখন তাঁরা দুজনই তাঁদের রিলেশনশিপ স্ট্যাটাস অপশনটা লুকিয়ে রেখেছেন। এ বিষয়ে শখের সঙ্গে কথা বললে তিনি নিজেই তাঁদের সম্পর্কের ভাঙনের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। শুধু তাই নয়, প্রেমের সম্পর্ক ভাঙার পেছনে নিলয়ের বিরুদ্ধে বেশ কিছু অভিযোগও করেন তিনি।

আলোচিত মডেল ও অভিনয়শিল্পী আনিকা কবির শখ দুই বছর আগে প্রেমের সম্পর্ক গড়েছিলেন ‘সুপার হিরো’খ্যাত নিলয় আলমগীরের সঙ্গে। বেশ ভালোই চলছিল দুজনের প্রেম। গত দুই বছর নিজেদের প্রেমের সম্পর্ক নিয়ে কোনোরকম রাখঢাকও করেননি তাঁরা। সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইট ফেসবুকেও নিজেদের প্রেমের সম্পর্কের বিষয়টি অকপটে তুলে ধরেছেন। কিন্তু সম্প্রতি তাঁদের এই প্রেমে ফাটল ধরে।

এ বিষয়ে গত ১৭ জানুয়ারি জানিয়েছিলেন, ‘আমাদের দুজনের মধ্যে ভালোবাসার সম্পর্ক ছিল। নিলয়কে আমি অনেক বেশি ভালোবাসতাম। অনেক বেশি বিশ্বাস করতাম। কিন্তু সে আমার সঙ্গে রীতিমতো প্রতারণা করেছে। গোপনে সে আরেকজন (মডেল ও অভিনয়শিল্পীর) সঙ্গেও প্রেমের সম্পর্ক তৈরি করেছে। শুধু তাই নয়, নিলয় আমাকে নানাভাবে অনেকের সামনে হেয়ও করেছে। এ জন্য আমাকে পারিবারিক ও সামাজিকভাবে নানা কথা শুনতে হয়েছে, যেগুলো আমার জন্য সত্যিই অনেক বিব্রতকর ছিল।’

শখ আরও বলেন, ‘নিলয়ের সঙ্গে সম্পর্কের শুরুতে বিষয়গুলো আমি টের পাইনি। এক বছর পরই তাঁকে আমি অন্যভাবে চিনতে থাকি, যা শুরুর দিকে চোখে পড়েনি। তবে সবকিছুর পরও আমি তাঁর নেতিবাচক আচরণগুলো সংশোধন করতে অনুরোধ করেছি। কিন্তু সে কোনোভাবেই নিজেকে পরিবর্তন করেনি। বলতে পারেন, একপর্যায়ে বাধ্য হয়েই সম্পর্ক ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত নিই।’

খবর চাউর হয়েছিল, শখ তরুণ একজন নাট্যনির্মাতার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়েছেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে শখ বলেন, ‘নিলয়ের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরির আগে ওই নির্মাতা আমার খুব ভালো বন্ধু ছিল। মাঝে তার সঙ্গে যোগাযোগ ছিল না। পরে বুঝলাম, সেটা ঠিক সিদ্ধান্ত ছিল না। যে নির্মাতার কথা আপনি বলতে চাইছেন, সে এখনো আমার খুব ভালো একজন বন্ধু। তার সঙ্গে অনেক বিষয় শেয়ার করতে পারি আমি। এটাকে কেউ বাঁকা চোখে দেখলে কিছু করার নেই।’
এদিকে, দুই সপ্তাহ যেতে না যেতেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন শখ। আজ ৫ ফেব্র“য়ারি শখ জানান, ‘এটা ঠিক যে, নিলয়ের সঙ্গে আমার ঝগড়া হয়েছিল। তখন রাগ করে উল্টাপাল্টা সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। সত্যি বলতে, সম্পর্কের মাঝে তো টুকটাক ঝগড়া থাকবেই। এ নিয়ে এত কথা বলার তো কিছুই নেই। আমি বলতে চাই, এখন ওসব মিটমাট হয়ে গেছে। আমরা আগের মতোই আছি। আমাদের জন্য দোয়া করবেন। ইচ্ছে আছে আমাদের প্রেম ও ভালোবাসাকে বিয়েতে রূপ দেওয়ার।’

শখের বিভিন্ন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে নিলয় বলেন, ‘শখের সঙ্গে মাঝে কিছু বিষয় নিয়ে ঝগড়া হয়েছিল। কিন্তু পরে তা ঠিক হয়ে যায়। আমার প্রতি শখের অভিমান থাকতে পারে। তবে তার প্রতি আমার কোনো অভিযোগ নেই। আমরা বেশ ভালো আছি।’নিজেদের ফেসবুকের রিলেশনশিপ স্ট্যাটাসে ‘ইন অ্যা রিলেশনশিপ উইথ’ থেকে ‘সিঙ্গেল’-এ ফিরে এসেছেন শখ ও নিলয়। এমনকি এখন তাঁরা দুজনই তাঁদের রিলেশনশিপ স্ট্যাটাস অপশনটা লুকিয়ে রেখেছেন। এ বিষয়ে শখের সঙ্গে কথা বললে তিনি নিজেই তাঁদের সম্পর্কের ভাঙনের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। শুধু তাই নয়, প্রেমের সম্পর্ক ভাঙার পেছনে নিলয়ের বিরুদ্ধে বেশ কিছু অভিযোগও করেন তিনি।

আলোচিত মডেল ও অভিনয়শিল্পী আনিকা কবির শখ দুই বছর আগে প্রেমের সম্পর্ক গড়েছিলেন ‘সুপার হিরো’খ্যাত নিলয় আলমগীরের সঙ্গে। বেশ ভালোই চলছিল দুজনের প্রেম। গত দুই বছর নিজেদের প্রেমের সম্পর্ক নিয়ে কোনোরকম রাখঢাকও করেননি তাঁরা। সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইট ফেসবুকেও নিজেদের প্রেমের সম্পর্কের বিষয়টি অকপটে তুলে ধরেছেন। কিন্তু সম্প্রতি তাঁদের এই প্রেমে ফাটল ধরে।

এ বিষয়ে গত ১৭ জানুয়ারি জানিয়েছিলেন, ‘আমাদের দুজনের মধ্যে ভালোবাসার সম্পর্ক ছিল। নিলয়কে আমি অনেক বেশি ভালোবাসতাম। অনেক বেশি বিশ্বাস করতাম। কিন্তু সে আমার সঙ্গে রীতিমতো প্রতারণা করেছে। গোপনে সে আরেকজন (মডেল ও অভিনয়শিল্পীর) সঙ্গেও প্রেমের সম্পর্ক তৈরি করেছে। শুধু তাই নয়, নিলয় আমাকে নানাভাবে অনেকের সামনে হেয়ও করেছে। এ জন্য আমাকে পারিবারিক ও সামাজিকভাবে নানা কথা শুনতে হয়েছে, যেগুলো আমার জন্য সত্যিই অনেক বিব্রতকর ছিল।’

শখ আরও বলেন, ‘নিলয়ের সঙ্গে সম্পর্কের শুরুতে বিষয়গুলো আমি টের পাইনি। এক বছর পরই তাঁকে আমি অন্যভাবে চিনতে থাকি, যা শুরুর দিকে চোখে পড়েনি। তবে সবকিছুর পরও আমি তাঁর নেতিবাচক আচরণগুলো সংশোধন করতে অনুরোধ করেছি। কিন্তু সে কোনোভাবেই নিজেকে পরিবর্তন করেনি। বলতে পারেন, একপর্যায়ে বাধ্য হয়েই সম্পর্ক ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত নিই।’

খবর চাউর হয়েছিল, শখ তরুণ একজন নাট্যনির্মাতার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়েছেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে শখ বলেন, ‘নিলয়ের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরির আগে ওই নির্মাতা আমার খুব ভালো বন্ধু ছিল। মাঝে তার সঙ্গে যোগাযোগ ছিল না। পরে বুঝলাম, সেটা ঠিক সিদ্ধান্ত ছিল না। যে নির্মাতার কথা আপনি বলতে চাইছেন, সে এখনো আমার খুব ভালো একজন বন্ধু। তার সঙ্গে অনেক বিষয় শেয়ার করতে পারি আমি। এটাকে কেউ বাঁকা চোখে দেখলে কিছু করার নেই।’
এদিকে, দুই সপ্তাহ যেতে না যেতেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন শখ। আজ ৫ ফেব্র“য়ারি শখ জানান, ‘এটা ঠিক যে, নিলয়ের সঙ্গে আমার ঝগড়া হয়েছিল। তখন রাগ করে উল্টাপাল্টা সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। সত্যি বলতে, সম্পর্কের মাঝে তো টুকটাক ঝগড়া থাকবেই। এ নিয়ে এত কথা বলার তো কিছুই নেই। আমি বলতে চাই, এখন ওসব মিটমাট হয়ে গেছে। আমরা আগের মতোই আছি। আমাদের জন্য দোয়া করবেন। ইচ্ছে আছে আমাদের প্রেম ও ভালোবাসাকে বিয়েতে রূপ দেওয়ার।’

শখের বিভিন্ন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে নিলয় বলেন, ‘শখের সঙ্গে মাঝে কিছু বিষয় নিয়ে ঝগড়া হয়েছিল। কিন্তু পরে তা ঠিক হয়ে যায়। আমার প্রতি শখের অভিমান থাকতে পারে। তবে তার প্রতি আমার কোনো অভিযোগ নেই। আমরা বেশ ভালো আছি।’

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

আমি ফারজানা চৌধুরী তন্বী। লেখালিখি করি ফারজানা তন্বী নামে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর করার পর আজ প্রায় পাঁচ বছর ধরে লেখালিখির সঙ্গেই আছি। বার্তাবাংলা’য় কাজ করছি সিনিয়র রিপোর্টার হিসেবে। আমার বিশেষ আগ্রহের ক্ষেত্র ফিচার, প্রযুক্তি আর লাইফস্টাইল। ভালো লাগে ভ্রমণ, বইপড়া, বাগান করা আর ইন্টারনেট নিয়ে পড়ে থাকা :)

মন্তব্য করুন »