পাকিস্তান জবর দখল করে ক্ষমতায় ছিল,সরকারও তেমনি রয়েছে

বার্তাবাংলা ডেস্ক :: ‘আওয়ামী লীগকে খতম করার জন্য যিনি গণবাহিনী গঠন করেছিলেন তিনিই আজ বঙ্গবন্ধু কন্যার কেবিনেটে রয়েছেন’ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন।

সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া এবং সিনিয়র ভাইস-চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সপ্তম কারামুক্তি উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। তারেক রহমান মুক্তি পরিষদ এ আলোচনার আয়োজন করে।

শাহ মোয়াজ্জেম শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ করে বলেন, ‘যারা আপনার বাবার চামড়া দিয়ে ঢোল বাজাতে চেয়েছিলেন তাদের আপনি মন্ত্রী বানালেন। ’

তিনি বলেন, ‘বর্তমান সরকার অবৈধ। এটা শুধু আমরা বলছি না। পৃথিবীর মানুষ বলছে। ২৫ জানুয়ারির পর থেকে আওয়ামী লীগ জবরদখলকারী। পাকিস্তান যেভাবে নয় মাস জবর দখল করে ক্ষমতায় ছিল, এই সরকারও তেমনি রয়েছে।’

প্রবীণ এ নেতা বলেন, ‘আজ যারা আওয়ামী লীগ করে তারা প্রকৃত আওয়ামী লীগের লোক নয়। তারা হচ্ছেন কমিউনিস্ট, ভারতীয় ও নতুনদের নিয়ে তৈরি আওয়ামী লীগ।’

শাহ মোয়াজ্জেম দাবি করে বলেন, ‘জিয়াউর রহমানই বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষক। বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়ে যাননি।’

তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনা বলছেন তিনি দেশের অনেক উন্নয়ন করেছেন। প্রকৃত পক্ষে ধর্ষণ, চুরি, রাহাজানি, চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি, ব্যাংক লুটের উন্নয়ন করেছেন তিনি।’

বিএনপির এই নেতা আরো বলেন, ‘যিনি সংবিধান স্বীকারই করেননি, সেই সুরঞ্জিত সেনগুপ্তকে করা হয়েছে সংশোধন কমিটির চেয়ারম্যান।’

বিএনপির প্রচার সম্পাদক জয়নাল আবদিন ফারুক বলেন, ‘দেশের লাখ লাখ মানুষ আজ হামলা-মামলার শিকার। তবে তারা হতাশ নয়।’

সংগঠনের সভাপতি মো. রফিকুল ইসলাম রতনের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন সাবেক ছাত্রনেতা হাবিবুর রহমান হাবিব, মোস্তফা কামালপাশাসহ অন্যান্য নেতারা।