বার্তাবাংলা ডেস্ক »

Dating App

criket3বার্তাবাংলা ডেস্ক :: হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে বোলিংয়ের ২২ গজে ‘স্টেইনগান’ ডেল স্টেইনের আগুন আর ব্যাটিংয়ে ফ্যাফ ডু প্লেসিসের ধারাবাহিকতায় ত্রিদেশীয় সিরিজের শিরোপা ঘরে তুললো দক্ষিণ আফ্রিকা। শনিবারের ফাইনালে ইনিংসের ৫৫ বল বাকি থাকতেই প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী অস্ট্রেলিয়াকে ছয় উইকেটে হারিয়ে কাপ জেতার শেষ ধাপটা সম্পন্ন করে এবি ডি ভিলিয়ার্স বাহিনী।

এদিন টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয় এবি ডি ভিলিয়ার্স। তার সেই সিদ্ধান্তের সার্থকতা প্রমাণ করেছেন ডেল স্টেইন, মরনে মরকেল এবং ওয়েইন পারনেলরা। ফলে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নামা অস্ট্রেলিয়া তাদের ইনিংসের প্রথম থেকেই জবুথবু। প্রোটিয়া পেস ব্যাটারিতে নাকাল হয়ে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়েছে দ্য ইয়েলোরা। তারপরেও নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে নয় উইকেটে অসিদের সংগ্রহ ২১৭ রান হয় লোয়ার অর্ডারে জেমস ফকনার ও মিশেল স্টার্কের রেকর্ড পার্টনারশিপে। এদিন অসিদের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫৪ রান করেছেন দলটির ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ। দ্বিতীয় সেরা ৩৯ রান এসেছে ফকনারের ব্যাটে। দক্ষিণ আফ্রিকার ডেল স্টেইন ৩৪ রানে চারটি উইকেট নেন। দুটি করে উইকেট পেয়েছেন পারনেল ও মরকেল।

এরপর ২১৮ রানের লক্ষ্য তাড়ায় দক্ষিণ আফ্রিকানরাও ইনিংসের শুরুতেই উইকেট হারায়। স্কোরবোর্ডে ১৭ রান উঠতেই বিদায় নেন দলটির মারকুটে ওপেনার কুইন্টন ডি কক। তবে দ্বিতীয় উইকেটে হাশিম আমলা ও ফ্যাফ ডু প্লেসিস জুটি এই ধাক্কাটা ভালোভাবেই সামলে নেন। দলকে জয়ের কক্ষপথে ফেরান। শেষ পর্যন্ত আমলা অর্ধশতক হাঁকিয়ে ব্যক্তিগত ৫১ রানের মাথায় সাজঘরে ফেরেন। তবে উইকেটের আরেক প্রান্তে ঠিকই বিশ্বস্ত ছিলেন ডু প্লেসিস। দলকে জয়ের কাছাকাছি পৌঁছিয়ে ৪১তম ওভারে ডু প্লেসিস নার্ভাস নাইনটিজের শিকার হন। ফেরেন ৯৬ রান করে। বাকি কাজটুকু সারেন ডি ভিলিয়ার্স। ব্যক্তিগত ৫৭ রান করে দলকে জয় উপহার দিয়ে মাঠ ছাড়েন প্রোটিয়া দলপতি। অস্ট্রেলিয়ার মিশেল জনসন, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, স্টিভ স্মিথ ও জেমস ফকনার একটি করে উইকেট পান। ম্যান অব দ্য ম্যাচ হন স্টেইন। আর ম্যান অব দ্য সিরিজ ফ্যাফ ডু প্লেসিস।

Dating App
শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »