এ কে খন্দকার খুনীদের কাছে আত্মসর্মপণ করেছেন

বার্তাবাংলা ডেস্ক :: আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, এ কে খন্দকার তার প্রকাশিত বইয়ে স্বাধীনতার প্রকৃত ইতিহাস ও বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বই প্রকাশ করে এবং সেখানে কিছু উক্তি লিখে বিরোধীদের হাতে সমালোচনার করার অস্ত্র তুলে দিয়েছেন। এটা অত্যন্ত দুঃখজনক। তাকে মনে রাখতে হবে, বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের হত্যার ঘটনার পর আমার পিতা ক্যাপ্টেন মনসুর আলী এ কে খন্দকারকে হত্যাকারীদের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করতে বলেছিলেন। কিন্ত তিনি তা না করে খুনীদের কাছে আত্মসর্মপণ করেছিলেন। তারপরও বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা তাকে মন্ত্রীত্ব দিয়ে সম্মানিত করেছিলেন। কিন্ত আজ সেই এ কে খন্দকার বই প্রকাশের নামে দেশের স্বাধীনতার ঐতিহাসিক বিষয়গুলো নিয়ে ভূল তথ্য দিয়ে জাতিকে বিভ্রান্ত ও ইতিহাস বিকৃতি করছেন। এ ভূলের জন্য জাতির কাছে তাকে ক্ষমা চাইতে হবে। শনিবার দুপুরে সিরাজগঞ্জ শহরের শহীদ এম, মনসুর আলী অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত পৌর আওয়ামী লীগের সন্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, বয়সের কারণে হয়তো এ কে খন্দকারের ভিমরতি ধরেছে। তাই আবোল তাবোল বলছেন। আর বিএনপির আন্দোলনের কোন ইস্যু না থাকায় ওই লেখা নিয়ে তারা রাজনীতির মাঠ গরম করার চেষ্টা করছেন। তাদের মনে রাখতে হবে, কে কি বললো তাতে জাতির কিছু যায়-আসে না। স্বাধীনতার প্রকৃত ইতিহাস জাতি জানে। সেটাকে কোন দিনও বিকৃত করা যাবে না। পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ইসহাক আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, সিরাজগঞ্জ-২ আসনের এমপি অধ্যাপক হাবিবে মিল্লাত মুন্না, সংরক্ষিত মহিলা এমপি সেলিনা বেগম স্বপ্না, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক কে,এম হোসেন আলী হাসান ও পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দানীউল হক দানীসহ অন্যান্যরা বক্তব্য রাখেন।

এ ধরনের আরও কন্টেন্ট
এ ধরনের আরও কন্টেন্ট