সারাদেশে প্রথম রাজউক, দ্বিতীয় কাদির মোল্লা সিটি কলেজ

বার্তাবাংলা রিপোর্ট :: এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়েছে। সারাদেশে গড় পাসের হার ৭৮.৩৩। শুক্রবার গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর হাতে ফলাফলের কপি তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। এদিকে, পরীক্ষার ফলে সন্তোষ প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফলাফলে সারাদেশে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৭০ হাজার ৬০২ জন।

সারাদেশে এ বছর প্রথম স্থান অধিকার করেছে রাজউক উত্তরা মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, দ্বিতীয় স্থান আবদুল কাদির মোল্লা সিটি কলেজ নরসিংদী এবং তৃতীয় স্থান অধিকার করেছে আদমজী ক্যান্টনমেন্ট স্কুল অ্যান্ড কলেজ।

ঢাকা বোর্ডে পাসের হার ৮৪.৫৪ । ঢাকা বোর্ডে প্রধম রাজধানীর রাজউক উত্তরা মডেল কলেজ, দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে নরসিংদীর কাদির মোল্লা সিটি কলেজ, তৃতীয় স্থানে আদমজী ক্যান্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ।

সিলেট শিক্ষা বোর্ডে এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে মোট দুই হাজার ৭০ জন শিক্ষার্থী। এদের মধ্যে ছেলে এক হাজার ১৮৭ ও মেয়ে ৮৮৩ জন। সিলেট শিক্ষাবোর্ডে এবার প্রথম স্থান অর্জন করেছে জালালাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ, দ্বিতীয় স্থানে সিলেট ক্যাডেট কলেজ, তৃতীয় স্থানে সিলেট এমসি কলেজ, চতুর্থ স্থানে সিলেট সরকারি মহিলা কলেজ ও পঞ্চম স্থানে রয়েছে সিলেট কমার্স কলেজ।

কুমিল্লা বোর্ডে এইচএসসি পরীক্ষায় পাসের হার ৭০ দশমিক ১৪ শতাংশ। এ বোর্ডে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ হাজার ৬শ’ জন। কুমিল্লা বোর্ডে প্রথম হয়েছে কুমিল্লা ক্যাডেট কলেজ, দ্বিতীয় হয়েছে ফেনী গার্লস ক্যাডেট কলেজ এবং তৃতীয় হয়েছে কুমিল্লা ইস্পাহানি পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ।

চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় পাসের হার ৭০ দশমিক শূন্য ৬ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে দুই হাজার ৬৪৬ জন। চট্টগ্রাম বোর্ডে শীর্ষে রয়েছে ফৌজদার হাট ক্যাডেট কলেজ, চট্টগ্রাম সরকারি কলেজ ও সরকারি কমার্স কলেজ।

বরিশাল বোর্ডে পাসের হার ৭১ দশমিক ৭৫ শতাংশ। মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে ২২২৫ জন। মোট পাস করেছে ৩৯ হাজার ৪০২ জন। এর মধ্যে ছেলে ১৯ হাজার ৬৯৩ জন ও মেয়ে ১৯৭০৯ জন। বোর্ড সেরা বরিশাল ক্যাডেট কলেজ।

রাজশাহী বোর্ডে পাসের হার ৭৮ দশমিক ৫৫ শতাংশ। এ বোর্ড থেকে সেরা ফল করেছে রাজশাহী কলেজ। দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডে পাস করেছে ৭৪.১৪ শতাংশ। ৪ হাজার ৪৭৪ জন পেয়েছে জিপিএ-৫। যশোর বোর্ডে ৬০ দশমিক ৫৮ শতাংশ। মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডে ৯৪দশমিক ০৮ শতাংশ এবং কারিগরি শিক্ষা বোর্ডে ৮৫.০২ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছে।