পদ্মাসেতুর কার্যাদেশের চুক্তি সই

বার্তাবাংলা রিপোর্ট :: চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেডের সঙ্গে পদ্মা সেতুর কার্যাদেশের চুক্তি সই করেছে যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সেতু বিভাগ। মঙ্গলবার রাতে হোটেল রূপসী বাংলা হোটেলে এ চুক্তি সই হয়।

চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেডের পক্ষে চুক্তিতে সই করেন লিও ডিমিং এবং পদ্মা সেতুর পক্ষে প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম। চুক্তি সই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন যোগাযোগ মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান এবং চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেডের কর্মকর্তারা।

এ সেতু নির্মাণে প্রায় ১২ হাজার ১৩৩ কোটি টাকা খরচ হবে বলে জানিয়েছেন যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এ সময় তিনি আরও বলেন, ২০১৮ সাল নাগাদ যান চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হবে।

গত ২ জুন পদ্মাসেতু প্রকল্পে মূল সেতু নির্মাণের জন্য কার্যাদেশ অনুমোদন দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওই দিন বিশ্বব্যাংকের প্রি-কোয়ালিফাইড সর্বনিম্ন দরদাতা হিসেবে চীনের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেডকে ওয়ার্ক অর্ডার বা কার্যাদেশ দেওয়া হয়। সর্বনিম্ন ১২ হাজার ১৩৩ কোটি ৩৯ লাখ টাকা মূল্যের কার্যাদেশ পেয়েছে এ কোম্পানিটি।

গত ২২ মে চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেডকে দেয়া পদ্মা সেতু প্রকল্পের মূল সেতু নির্মাণের দরপত্র প্রস্তাব অনুমোদন দেয় সরকার। নির্মাতা প্রতিষ্ঠানকে মোট ব্যয়ের ২৫ দশমিক ৬০ শতাংশ (৩ হাজার ১০৬ কোটি ১৫ লাখ টাকা) দেশীয় অর্থে ও অবশিষ্ট ৭৪ দশমিক ৪০ শতাংশ (৯ হাজার ২৭ কোটি ২৪ লাখ টাকা) বৈদেশিক মুদ্রায় (ডলারে) পরিশোধ করতে হবে।