বার্তাবাংলা ডেস্ক »

বার্তাবাংলা বিশেষ রিপোর্ট :: রাজধানী ঢাকার ফার্মগেটসহ চট্টগ্রাম ও সিলেটে একযোগে সেক্সপার্টির আয়োজন করা হয়েছে। প্রশাসনের নাকের ডগায়ই চলছে ‘সেক্সপার্টি’র এ আয়োজন। রীতিমতো ফেসবুক পেজ খুলে এবং নিজস্ব ওয়েবসাইটে মোবাইল ফোন নাম্বার দিয়ে প্রকাশ্য ঘোষণায় চলছে জমজমাট যৌন ব্যবসা। বিডিকলগার্ল লিমিটেড নামের একটি ‘প্রতিষ্ঠান’ চালাচ্ছে এই ‘কর্মকাণ্ড’। প্রতিষ্ঠানটির এবারের পার্টি ২ মে। চলবে একযোগে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেটে।

বার্তাবাংলার পক্ষ থেকে এ বিষয়ে অনুসন্ধানে বেরিয়ে আসে অজানা সব তথ্য। সেক্সপার্টির কথা বলা হলেও মূলত প্রতারণাও ওই প্রতিষ্ঠানটির আয়ের অন্যতম উৎস। সেক্সপার্টির নামে যেসব মেয়েদের ব্যবহার করা হচ্ছে তাদের ঠিক মতো টাকা না দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। এছাড়া নামকরা সব ডিজেকেও ব্যবহার করা হচ্ছে পার্টিতে।

সেক্সপার্টির ফাঁদে পড়ে সর্বস্বান্ত হচ্ছে তরুণ প্রজন্মসহ সাধারণ মানুষ। আর টাকার লোভে উঠতি মেয়েরাও নামছে অন্ধকার জগতে। বিডিকলগার্লটুয়েন্টিফোরডটকম নামের একটি (http://www.bdcallgirl24.com) ওয়েবসাইটের মাধ্যমে চলছে রমরমা এ কারবার। সাইটটিতে বিভিন্ন বয়সী মেয়েদের অর্ধনগ্ন ছবি পোস্ট করা। পাশে ইচ্ছে করলেই জীবনবৃন্তান্ত দেখার সুযোগ রয়েছে। সেখানে মেয়ের বয়স, উচ্চতা, গায়ের রং, সময় আর টাকার পরিমাণ উল্লেখ করা। সঙ্গে বিনোদনের বিকৃত সব প্রস্তাব। বর্তমানের ওই প্রতারক চক্রের আকর্ষণীয় সেক্সপার্টির অফার চলছে। একযোগে এই সেক্সপার্টি হবে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেটে। গত বছরের ২০ ডিসেম্বর সফলভাবে পার্টি আয়োজনের পর আবার 2 মে শুক্রবার হতে যাচ্ছে আরেকেটি পাটি।

ফেসবুক পেজে্ এভাবেই দেয়া হয়েছে ‘চমকপ্রদ’ অফারটি –

“হ্যালো বন্ধুরা, বিগত দিনে আমরা অনেক বার সেক্স পাটিঁ করেছিলাম। আপনাদের অনেক সাড়া পেয়েছি এবং আমরা সফল হয়েছি । তারই ধারাবাহিকতায় ২ মে আমরা আয়োজন করতে যাচ্ছি ‘সেক্সপার্টি’। ঢাকা, চট্রগ্রাম ও সিলেট এই পার্টি অনুষ্ঠিত হবে। বিক্যাশ এর মাধ্যমে ৩০০০ টাকা পাঠিয়ে দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। পাটিঁতে রেজিস্ট্রেশন এর শেষ তারিখ ১ মে।”

এভাবে প্রকাশ্যে ‘সেক্সপার্টির’ অফার দেওয়া হয়েছে ‘বিডি কল গার্ল লিমিটেড’ নামের একটি ফেসবুক পেজ থেকে।

এসব পেজে প্রতিনিয়তই এমন মেয়েদের বিভিন্ন ছবি দিয়ে নানা ধরণের অফার দেওয়া হয়। এক্ষেত্রে ফোন করার জন্য সময়সীমা প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে রাত ১০টা বেঁধে দেওয়া হয়। উদাহরণ সরুপ একটি তুলো ধরা হলো-

৫০% এডভান্স করার পর আমদের লোকেশন বলা হবে ।
আপনি যদি অফারটি নিতে চান তাহলে এখন-ই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন।
আমাদের নাম্বার : ০১৮ ৫৩ ৬৬ ৭৯ ৫৩ (সজিব–বিডি কল গার্ল লিমিটেড)]

পেজগুলোতে বলা হয় তাদের পাটিঁতে সর্বোচ্চ ২ জনের সাথে সেক্স করা যাবে। থাকবে ড্রিংসের ব্যবস্থা। সেইসাথে ডিজে পার্টি এবং খাওয়া-দাওয়ার ব্যবস্থা থাকছে। তবে বারবার তাদের নোটিশগুলো ফোনে কাজের কথা ব্যতিত ‘অন্য’ কথা না বলার জন্য আহ্বান জানানো হয়। একইসাথে স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রীসহ বিভিন্ন বয়সের ছেলে-মেয়েদের ‘পর্নস্টার’ বানানোর অফার দেওয়া হয়েছে।

ওই চক্রের ওয়েবসাইটটিতে সেখানে গিয়ে দেখা যায়, সানিয়া, নাজমা, রিমি, ফারজানা, তানিয়া, অহনা, রিয়া, মারিয়া, রিয়া-২, পলি, শিলা এবং রিতাসহ বেশকিছু মেয়ের অর্ধ নগ্ন ছবি দেওয়া। এই কথিত কর্লগালদের সাথে রয়েছে ফোন সেক্স ও গ্রুপ সেক্স করার সুযোগ। একই সাথে রয়েছে প্রত্যেকের সাথে সময় কাটানোর জন্য টাকার পরিমাণ। কয়েকজন ডিজিটাল জকি‘র নামও রয়েছে ওই সাইটে। এরা আবার বাংলাদেশ ডিস্ক জকি অ্যাসোসিয়েশনেরও মেম্বার!

রাজধানীতে দিনের পর পর এ ব্যবসা চলে আসলেও নীরব প্রশাসন। গত বছরের ১ এপ্রিল ওই ডোমেনটি কেনা হলেও তা বন্ধের কোনো উদ্যোগ নেই বিটিআরসি’র। সাধারণ মানুষের প্রশ্ন, তাহলে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা করে কি!? শিগগিরই বিশেষ অভিযান চালিয়ে প্রকাশ্যে এই সেক্সপার্টি বন্ধের দাবি সচেতন সমাজের।

সম্প্রতি সাইটটিতে যে পোস্ট করা হয়েছে তুলে ধরা হলো হুবহু— “*পাটিঁ : ০২ / ০৫ / ২০১৪ ।
*রেজিষ্টেশন এর শেষ তারিখ : ০১ / ০৫ / ২০১৪ ।

*** এই পাটিঁতে জয়েন করতে হলে ৩০০০ টাকা দিয়ে রেজিষ্টেশন করতে হবে

*** এই পার্টি ঢাকা , চট্রগ্রাম ও সিলেট এ অনুষ্ঠিত হবে ***

*** বিক্যাশ (Bkash) এর মাধ্যমে টাকা পাঠিয়ে রেজিষ্টেশন করতে হবে ***
-: যা যা থাকছে আমাদের পাটিঁতে :-
১. সর্বোচ্চ ২ জনের সাথে সেক্স করতে পারবেন ।
২. গ্রুপ সেক্স করতে পারবেন (you and our 2 girl’s)।
৩ . ড্রিংস করতে পারবেন ।
৪ . ১০ জন বাংলাদেশী মডেল এ সাথে দেখা করার সুযোগ ( kissing and dancing)
৫. DJ Party (DJ Mithila or DJ Farjana)

* এছাড়াও রাতে খাওয়া/থাকার ব্যাবস্থা তো আছেই ।
তাহলে দেরি না করে এখন ই এই নাম্বারে ( ০১৮ ৫৩ ৬৬ ৭৯ ৫৩ ) কল করে রেজিষ্টেশন করে নিন ।

বি .দ্র : আজাইরা ফাও আলাপ করার জন্য কেউ কল করবেন না । যারা সেক্স করতে / পাটিঁতে যয়েন করতে চান তারা ই কল করবেন ।”

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের একজন সহকারী কমিশনার বার্তাবাংলাকে বলেন, আমরা আইটি এক্সপার্টদের সহযোগিতায় ওই চক্রটিকে ধরতে শিগগিরই অভিযান চালাবো।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »