বার্তাবাংলা ডেস্ক »

ইস্যু পুরোনো, উত্তরও আগের মতোই। শুধুই অধিনায়ক ও ব্যাটসম্যান, নাকি সঙ্গে কিপিং মিলিয়ে ত্রয়ীর ভূমিকা, দক্ষিণ আফ্রিকায় দেখা মিলবে কোন মুশফিকুর রহিমের? বরাবরের মতোই মুশফিক জানালেন, মেনে নেবেন দলের সিদ্ধান্ত। সবশেষ অস্ট্রেলিয়া সিরিজে কিপিং করেছেন মুশফিক। তার আগে শ্রীলঙ্কা সিরিজ শুরু করেছিলেন কিপিং না করে। পরে লিটন দাসের চোটে দ্বিতীয় টেস্টে কিপিং করেন।

দলের তিনি অধিনায়ক, সেই হিসেবে টিম ম্যানেজমেন্টেরও অংশ। তার পরও অস্ট্রেলিয়া সিরিজ শেষে সংবাদ সম্মেলনে নিজের ভূমিকা নিয়ে মুশফিক নিজেই জানিয়েছিলেন সংশয়। নিশ্চিত নন কোনটা করা উচিত। বলেছিলেন, ‘ওপরওয়ালারা’ ভালো বলতে পারবে। শনিবার দক্ষিণ আফ্রিকায় রওনা হওয়ার দিনও জানালেন, ভূমিকা নিয়ে তিনি যথারীতি অন্ধকারে।

“আমি, আমাদের টিম ম্যানেজম্যান্টের সঙ্গে বসে সিদ্ধান্ত নিতে পারব। সামনে আমাদের একটা তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ রয়েছে। ওখানে কন্ডিশন দেখে আমাদের যদি মনে হয় আমি একজন ব্যাটসম্যান হিসেবে খেললে ভালো হবে তাহলে সেটাই হবে। যদি তারা মনে করে, আমার কিপার-ব্যাটসম্যান খেললে ভালো হবে, তাহলে সেভাবেই খেলবো। আমাকে দলের জন্য যেটা করতে বলবে, সেটাই করব।”

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »