মার্কিন নারীদের হাতে ধর্ষিত ৪৩% কিশোর

বার্তাবাংলা রিপোর্ট :: যৌন হয়রানির শিকার পুরুষদের ওপর এক সমীক্ষা চালোনো হয় যুক্তরাষ্ট্রে, যেখান থেকে উঠে তাদের ওপর যৌন হয়রানির বিচিত্র সব তথ্য। সমীক্ষায় দেখা গেছে, যুক্তরাষ্ট্রের অনেক নারী সে দেশের ১৩ থেকে ১৯ বছর বয়েসী কিশোরদের, তাদের সঙ্গে যৌন মিলনে বাধ্য করে থাকেন।

মিসৌরি বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে ২৮৪ মার্কিন কিশোরের মধ্যে এ সমীক্ষা চালানো হয়।

কিশোর ও কলেজ পড়ুয়া সদ্য কৈশোরোত্তীর্ণ তরুণদের একটি বড় অংশ সমীক্ষক দলের কাছে যৌন নিপীড়নের শিকার হওয়ার কথা জানায়। তাদের ভাষ্য বিশ্লেষণ করে জানা যায়, শতকরা ৪৩ জন বালক এ ধরনের যৌন হয়রানির শিকার।

এদের মধ্যে শতকরা ১৮ জনকে সঙ্গমে বাধ্য করা হয়েছে, শতকরা ৩১ জন বালককে নির্যাতন করা হয়েছে, শতকরা ২৬ জনকে পরিবেশ সৃষ্টি করে বাধ্য করা হয়েছে।

আরও জানা যায়, শতকরা ৯৫ জন নারী বালকদের ওপর চড়াও হয়েছেন রীতিমতো আগ্রাসী ভূমিকায়। অবশিষ্ট শতকরা ৫ জন শারীরিকভাবে কষ্ট দেননি।

মার্কিন কিশোরদের কাছ থেকেই এ অভিযোগ বেশি পাওয়া যায়। এশীয় বংশোদ্ভূত মার্কিন বালকদের ক্ষেত্রে এমন ঘটনা তেমন একটা ঘটে না।

এ ব্যাপারে মিসৌরি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ব্রায়ানা এইচ ফ্রেঞ্চ বলেন, ‘পুরুষদের যৌন হয়রানির ঘটনাগুলো খুব বেশি আলোচনায় আসে না। কিন্তু এ ধরনের আচরণ শিশু নির্যাতনের পর্যায়ে পড়ে এবং এর প্রতিরোধের জন্যে অবশ্যই আলোচনায় নিয়ে আসা জরুরি।’

তিনি আরও বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রে এ ধরনের ঘটনার সংখ্যা আশঙ্কাজনকভাবে বেড়ে চলেছে।’