‘ইসলামী ব্যাংকের টাকা ফেরত দেয়া উচিত’

বার্তাবাংলা ডেস্ক :: যুদ্ধাপরাধী জামায়াতে ইসলামীর প্রতিষ্ঠানের টাকায় লাখো কণ্ঠে জাতীয় সংগীতের কর্মসূচি হবে না বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। তিনি বলেছেন, আমি মনে করি তাদের টাকা ফেরত দেয়া উচিত। জামায়াতে ইসলামী ও যুদ্ধাপরাধীদের প্রতিষ্ঠানের টাকায় জাতীয় সংগীত গাওয়ার কর্মসূচি হতে পারে না। মঙ্গলবার বাংলা একাডেমিতে মোবাশ্বের আলী ফাউন্ডেশন আয়োজিত একাডেমির কবি শামসুর রাহমান মিলনায়তনের অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এসময় তিনি টাকা ফেরত দেয়া হবে বলে ঘোষণা দিয়ে হাসানুল হক ইনু বলেন, আমি জানি না আমার কি হবে। ইসলামী ব্যাংকের টাকা দিয়ে জাতীয় সংগীত হবে না, হতে পারে না। তাই এই টাকা ফেরত দেয়া হবে। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা সরকারের ভুল-ত্রুটি থাকতে পারে। কিন্তু অসাম্প্রদায়িক হওয়ার সেই সুযোগ ও ছায়াটা এই সরকারই দিচ্ছে। লাখো কণ্ঠে জাতীয় সংগীতের কর্মসূচি ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য গত ১৪ই মার্চ গণভবনে বিভিন্ন ব্যাংক এবং বীমা প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে আর্থিক সহায়তার চেক গ্রহণ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওইদিন প্রধানমন্ত্রীর হাতে সহায়তার চেক দেন ইসলামী ব্যাংকের একজন শীর্ষ কর্মকর্তা। সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ও সশস্ত্র বাহিনীর সহযোগিতায় ২৬শে মার্চ স্বাধীনতা দিবসে জাতীয় প্যারেড স্কয়ারে লাখো কণ্ঠে জাতীয় সংগীত গাওয়া হবে। বিশ্বের সর্ববৃহৎ মানব পতাকা গড়ে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে জায়গা নেয়ার পর লাখো কণ্ঠে জাতীয় সংগীতের মাধ্যমেও রেকর্ড গড়ার এই উদ্যোগ নেয়া হয়।