সরকার নিজেদের স্বার্থে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়: ফখরুল

বার্তাবাংলা রিপোর্ট :: দেশ ও জাতি এখন সবচেয়ে কঠিন সময় পার করছে মন্তব্য করে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এই সরকার মানুষের অধিকার কেড়ে নিয়ে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়। এটি সবচেয়ে কঠিন সময়। নির্বাচনের নামে তামাশা-প্রতারণা করে যে সরকার চেপে বসেছে, তারা নিজেদের স্বার্থে সবকিছু করতে চায়।রোববার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এক প্রতিবাদ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।ফখরুল বলেন, দেশের রাজনৈতিক ইতিহাসে যে সময়টি অতিক্রম করছি, তা সবচেয়ে সংকট কাল।তিনি বলেন, মীর সরফত আলী সপু, শফিউল বারী বাবুসহ সব নেতাকর্মীর নিঃশর্ত মুক্তি ও নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে দ্রুত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দাবিতে সমাবেশের আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল।মির্জা ফখরুল বলেন, আজ শুধু সপু, মাহবুবই কারাগারে নেই, গোটা বাংলাদেশে বিরোধী রাজনৈতিক দল ও ভিন্নমতের হাজার হাজার মানুষ কারাগারে।মির্জা ফখরুল বলেন, আজ শুধু সপু, মাহবুবই কারাগারে নেই, গোটা বাংলাদেশে বিরোধী রাজনৈতিক দল ও ভিন্নমতের হাজার হাজার মানুষ কারাগারে।তিনি বলেন, এই অবৈধ ও অনৈতিক সরকারের অধীনে শুধু মিথ্যা মামলা নয়, তুলে নিয়ে বন্দুক যুদ্ধের নামে গুম করে ফেলা হচ্ছে।

ফখরুল বলেন, ২৫ অক্টোবর থেকে ২৫ জানুয়ারি পর্যন্ত ৩০৪ জনের বেশি মানুষকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। কোনো সভ্য গণতান্ত্রিক দেশে এটা কল্পনাও করা যায় না। কিন্তু আওয়ামী লীগ ক্ষমতা ধরে রাখতে জাতিকে জিম্মি করে রেখেছে।

তিনি বলেন, সব নীতি-নৈতিকতা বাদ দিয়ে বিরোধীদলের ওপর চেপে বসেছে এই সরকার। এদিন দুপুরে নয়াপল্টনে খন্দকার মাহবুবের জানাযায় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থার সমালোচনা করেন তিনি বলেন, এখন একটি জানাযাও তারা ভয় পেতে শুরু করেছে।

সংগঠনের সভাপতি হাবিব-উন-নবী খান সোহেলের সভাপতিত্বে সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু, বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আসাদুজ্জামান খান রিপন প্রমুখ।