ড. মাহবুবুল হকের ৬৬তম জন্মদিন কাল

বার্তাবাংলা রিপোর্ট :: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক বানান বিশেষজ্ঞ ড. মাহবুবুল হকের ৬৬তম জন্মদিন কাল ৩ নভেম্বর। ড. মাহবুবুল হক মূলত গবেষক হিসেবে পরিচিত। তাঁর জন্ম ১৯৪৮ সালের ৩রা নভেম্বর। পৈত্রিক নিবাস ফরিদপুর জেলার মধুখালিতে হলেও ছেলেবেলা থেকে জীবন কেটেছে চট্টগ্রামে। বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে ১৯৬৯-এ দ্বিতীয় শ্রেণিতে প্রথম হয়ে বি.এ সম্মান এবং ১৯৭০-এ প্রথম শ্রেণি পেয়ে এম.এ. ডিগ্রি অর্জন করেন। শিক্ষকতা করেছেন চট্টগ্রামের রাঙ্গুনীয়া কলেজে ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে। বর্তমানে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক। শিক্ষকতার পাশাপাশি প্রবন্ধ রচনা, ফোকলোর চর্চা, গবেষণা, অনুবাদ, সম্পাদনা ও পাঠ্য বই রচনা করে তিনি দেশে বিদেশে পরিচিতি লাভ করেছেন। এর মধ্যে তাঁর ত্রিশটিরও বেশি বই প্রকাশিত হয়েছে বাংলাদেশ, ভারত ও পূর্বতন সোভিয়েত ইউনিয়ন থেকে।

ড. মাহবুবুল হক বানান বিষয়ক একাধিক বই লিখে দেশে-বিদেশে প্রশংসা অর্জন করেছেন। বাংলাদেশ টেলিভিশনের ‘মাতৃভাষা’ অনুষ্ঠানে নিয়মিত বানান নিয়ে আলোচনা করেন তিনি। বাংলা বানানের সমতা বিধানে পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের কাজে ও বাংলা একাডেমীর বানান অভিধান ও প্রমিত বাংলা বানানের নিয়ম প্রণয়নে সক্রিয় ভূমিকা রয়েছে তাঁর। বাংলা একাডেমী প্রকাশিত ‘প্রমিত বাংলা ভাষার ব্যাকরণ’ গ্রন্থের তিনি সহযোগী সম্পাদক ও লেখক। নতুন শিক্ষানীতি অনুযায়ী ২০১২ ও ২০১৩ শিক্ষাবর্ষের বাংলা শিক্ষাক্রম প্রণয়নে তিনি আহবায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

ড. মাহবুবুল হক ভারতের কলকাতা, যাদবপুর, বিশ্বভারতী, কল্যাণী, পাতিয়ালা ও গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে, ত্রিপুরায় ও কলকাতার বঙ্গীয় সাহিত্য পরিষদে ভাষা সাহিত্য, ইতিহাস ও ফোকলোর বিষয়ে সম্মেলন ও সেমিনারে অংশ নিয়ে গবেষণা প্রবন্ধ উপস্থাপন করেছেন। ২০০৭-এ দিল্লিতে অনুষ্ঠিত প্রথম সার্ক ফোকলোর উৎসবে তিনি যোগ দিয়েছেন বাংলাদেশ দলের প্রতিনিধি হয়ে।

তাঁর উল্লেখযোগ্য গ্রন্থের মধ্যে রয়েছে : ‘বাংলা বানানের নিয়ম’, ‘নজরুল তারিখ অভিধান’, ‘বাংলার লোকসাহিত্য : সমাজ ও সংস্কৃতি’, ‘বাংলা ভাষা : কয়েকটি প্রসঙ্গ’, ‘সংস্কৃতি ও লোকসংস্কৃতি’. ‘রবীন্দ্রনাথ ও জ্যোতিরিন্দ্রনাথ’. ‘বাংলা সাহিত্যের দিক-বিদিক’, ‘প্রবন্ধ সংগ্রহ’ ইত্যাদি। এছাড়াও তিনি বহু পাঠ্যবই ও শিশুতোষ গ্রন্থ রচনা করেছেন।

লেখালেখি ও গবেষণার জন্য তিনি ফিলিপস পুরস্কার, মধুসূদন পদক, মুক্তিযুদ্ধ পদক, চট্টগ্রাম একাডেমী পুরস্কার, অবসর সাহিত্য পুরস্কারসহ বহু পুরস্কার ও সম্মাননা লাভ করেছেন।