বার্তাবাংলা ডেস্ক »

Climate Change Impactবার্তাবাংলা রিপোর্ট :: বাংলাদেশকে গ্রীন হাউস গ্যাস নির্গমনের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে রক্ষা করতে ক্ষয়-ক্ষতি হ্রাস ও সহযোগিতার পরিমান বৃদ্ধির দাবী জানানোর আহবান জানিয়েছেন জলবায়ু বিশেষজ্ঞগণ। গতকাল ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটিতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই আহবান জানানো হয়।

নভেম্বরে পোলান্ডের রাজধানী অসলোতে অনুষ্ঠিতব্য ‘কোপ কনভেনশন ১৯’ এর প্রাক্কালে আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা অক্সফাম সহ কয়েকটি সহযোগি উন্নয়ন সংগঠনের উদ্যোগে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।

বাংলাদেশকে জলবায়ু পরিবর্তণর সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ দেশ হিসেবে উল্লেখ করে বিশেষজ্ঞরা বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক সম্মেলন (কোপ-১৯) কে সামনে রেখে সাম্য, ন্যায় বিচার ও স্বচ্ছতার ভিত্তিতে জলবায়ূ পরিবর্তনে বাংলাদেশকে ক্ষতিগ্রস্থের হাত থেকে বাঁচানোর জন্য সহযোগিতার পরিমান বাড়াতে হবে। বিশেষজ্ঞরা বলেন, ২১০০ সাল নাগাদ তাপমাত্র বৃদ্ধি ১.৫ ডিগ্রীর নিচে রাখার সম্ভাব্যতা নিশ্চিত করতে ২০২০ সাল নাগাদ ৪৫ শতাংশ এবং ২০৫০ নাগাদ ৯৫ শতাংশ কমানো এবং ক্ষতিগ্রস্থ দেশগুলোর নির্গমন হ্রাসের ধারাবাহিকতা নিরূপন সহ আন্তর্জাতিক আলোচনার সিদ্ধান্ত এবং জলবায়ু সম্মেলনের ঘোষণা সমূহ বিবেচনার আহবান জানানো হয়।

জলবায়ূ পরিবর্তনের ক্ষেত্রে রাজেনৈতিক দলগুলোর অস্পটতা রয়েছে বলেও মনে করেন জলবায়ূ বিশেষজ্ঞগণ।

সেন্টার ফর গ্লোবাল চেঞ্জ এর নির্বাহী পরিচালক ড. আহসান উদ্দিন আহমেদ সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, এ সময় অন্যান্যেও মধ্যে উপস্থিত ছিলেন – জলবায়ু বিশেষজ্ঞ ড. মো. আসাদুজ্জামান, অ্যাকশন এইড এর তানজীর হোসেন, মিজানুর রহমান বিজয়, আমিনুল হক, নুজহাত ইমাম এবং মো: আব্দুল কাইয়ুম।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »