ব্লগার রাজীব হত্যা : সাদমান ৬ দিনের রিমান্ডে

বার্তাবাংলা রিপোর্ট :: ব্লগার রাজীব হায়দার (থাবা বাবা) হত্যা মামলার অন্যতম আসামি নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটির বিবিএয়ের ছাত্র সাদমান ইয়াসির মাহমুদকে (২০) ছয়দিনের রিমান্ডে নিয়েছে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।

বৃহস্পতিবার ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্টেট শামসুল আরেফীন ১০ দিনের রিমান্ড আবেদনের ওপর শুনানি শেষে ছয়দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

ডিবি পুলিশের পরিদর্শক মাইনুদ্দীন তাকে ১০ দিন রিমান্ডে নেয়ার আবেদন করেন।

রাজধানীর ধানমণ্ডি এলাকা থেকে বুধবার রাত সোয়া ৮টার দিকে সাদমানকে গ্রেপ্তার করা হয়। সাদমান আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের প্রধান জসিম উদ্দিন রাহমানীর সহযোগী। এ মামলার সন্দেহভাজন আসামি মুফতি মো. জসিম উদ্দিন রহমানীকে সোমবার দুপুরে গ্রেপ্তার করে বরগুনা পুলিশ। এ সময় আরও ৩১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ জানায়, রাজিব হত্যাকাণ্ডে সরাসরি অংশ নেয়ার অভিযোগে সাদমানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ডিবির সহকারী কমিশনার তৌহিদুল ইসলাম জানান, রাজীব হত্যাকাণ্ডে সরাসরি অংশ নেয় সাদমান। ঘটনার পর থেকে তিনি পালিয়ে বেড়াচ্ছিলেন।

গত ১৫ ফেব্রুয়ারি গণজাগরণ মঞ্চের অন্যতম নেতা ব্লগার আহমেদ রাজীব হায়দার শোভনকে (৩৫) নৃশংসভাবে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। মিরপুরের পলাশনগরের তার বাড়ির সামনে তাকে উপর্যুপরি কুপিয়ে হত্যা করা হয়। ঘটনার পর দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। পরেরদিন পল্লবী থানায় রাজীবের বাবা ডা. নাজিম উদ্দিন এ ঘটনায় অজ্ঞাতপরিচয় সন্ত্রাসীদের নামে একটি মামলা করেন।

এ মামলায় গত ১ মার্চ নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটির ৫ ছাত্রকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তারা হলেন ফয়সাল বিন নাইম (২২), মাকসুদুল হাসান অনিক (২৬), এহসানুর রেজা রোমান (২৩), নাঈম সিকদার (১৯) ও নাফিস ইমতিয়াজ (২২)।