‘আগামী নির্বাচনেও বিএনপিকে মানুষ প্রত্যাখ্যান করবে’

বার্তাবাংলা ডেস্ক :: আগামী নির্বাচনে ২০০৮ সালের মতোই দেশের মানুষ বিএনপিকে প্রত্যাখ্যান করবে বলে মনে করছেন আওয়ামী লীগ নেতারা। আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে বিএনপি-জামাত জোটের হুমকির প্রতিবাদে মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক প্রতিবাদ সভায় তারা এ কথা বলেন।

নেতারা বলেন, সংবিধানিকভাবেই আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আন্দোলনের হুমকি-ধমকি দিয়ে কাজ হবে না। জনগণ নির্বাচনে অংশ নিলে বিএনপির জন্য সে নির্বাচন থেমে থাকবে না বলেও মন্তব্য করেন তারা।

মহাজোট নীল নকশার নির্বাচন করবে না—এ কথা জানিয়ে আওয়ামী লীগ নেতারা বলেন, জনগণ নির্বাচনে অংশ নিলে বিএনপির জন্য সে নির্বাচন থেমে থাকবে না।

আইন প্রতিমন্ত্রী ব্যারিস্টার কামরুল ইসলাম বলেন, ‘জনগণ যদি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে, আপনারা (বিএনপি) যদি সে নির্বাচনে নাও আসেন সে নির্বাচন কোনো অবস্থাতেই আটকাবে না। আগামী নির্বাচনে বিএনপিকে ২০০৮ সালের মতোই মানুষ প্রত্যাখ্যান করবে।’

সজীব ওয়াজেদ জয়ের রাজনীতিতে আসার আশঙ্কায় বিএনপি অস্বস্তিতে ভুগছে বলেও মন্তব্য করেন নেতারা। আর দেশের মানুষ চারদলীয় জোটের দুঃশাসনের দিনগুলোতে ফিরে যেতে চায় না বলেও জানান তারা।

বন ও পরিবেশ মন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, ‘জনাব তারেক রহমান যখন আসবেন তখন বোমা হামলা, গ্রেনেড হামলার যে ঘূর্ণিঝড় হবে সেই ঘূর্ণিঝড়ে জনগণ এবং দেশটাই উড়ে যাবে। সুতরাং দেশবাসীকে আমি সময় থাকতে সাবধান হওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।’

এছাড়া যেকোনো ধরনের ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় দলের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানান আওয়ামী লীগ নেতারা।