বার্তাবাংলা ডেস্ক »

baddaসা্ইফুল ইসলাম: বুধবার স্কুল থেকে বাসায় ফিরে দোকানে যাওয়ার কথা বলে বের হয় মধ্যে বাড্ডার স্কুল ছাত্রী তামান্না আক্তার (১২)। এরপর থেকে সে আর বাসায় ফিরেনি। অবশেষে দুই দিন পর শুক্রবার দুপুরে তার সন্ধান মিলে । তবে মৃত।

নামাপাড়ার একটি জলাশয় থেকে তার ভাসমান লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

তামান্নার বাবার নাম আব্দুস সালাম। গ্রামের বাড়ি বরগুনার আমতলী। বাড্ডা মডেল স্কুলের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী সে।

শুক্রবার লাশ উদ্ধার করার পর সন্ধ্যায় লাশটি ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায় পুলিশ।
বাড্ডা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) গোলাম মোস্তফা সাংবাদিকদের জানান, শিশুটি বাড্ডার শাহাবুদ্দিনের মোড় এলাকায় শাহাবুদ্দিনের বাড়িতে পরিবারের সাথে ভাড়া থাকতো। বুধবার শিশুটি নিখোঁজ হয়। শুক্রবার দুপুর ১টা ৪৫ মিনিটে ওই এলাকার এক ব্যক্তি নামা পাড়ার ঝিলে মাছ ধরতে গিয়ে জলাশয়ে ভাসমান লাশ দেখে স্থানীয়দের খবর দেয়। পরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।
শিশুটির মা লাইলি বেগম সাংবাদিকদের জানান, বুধবার তামান্না বাসায় ফিরে বই রেখে দোকানে যাওয়ার কথা বলে। এরপর আর ফিরে আসেনি। অনেক জায়গায় খোঁজ করেও তার সন্ধান মেলেনি।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »