সাংসদ পদ ‘ছাড়ছেন’ রনি

বার্তাবাংলা ডেস্ক :: সাংবাদিক পিটুনির ঘটনার পটভূমিতে সংসদ সদস্যের পদ ছাড়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাংসদ গোলাম মাওলা রনি।

তার ফেইসবুক অ্যাকাউন্টে সোমবার সকালে ইংরেজিতে লেখা এক স্ট্যাটাস আপডেটে এ ইঙ্গিত দেন তিনি।
শনিবার দুপুরে রাজধানীর তোপখানা রোডের মেহেরবা প্লাজায় নিজ কার্যালয়ের সামনে ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের প্রতিবেদক ইমতিয়াজ মমিন সনি ও ক্যামেরাপার্সন মহসিন মুকুলকে মারধর করেন রনি। তার বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় হত্যাচেষ্টার অভিযোগে মামলাও হয়। এই মামলায় রোববার আদালতে হাজির হয়ে জামিন পান সাংসদ রনি।
এ পটভূমিতে রোববার এক মানববন্ধন থেকে তার গ্রেফতার এবং সংসদ সদস্য পদ বাতিলের দাবি জানান গণমাধ্যমকর্মীরা। এছাড়া তাকে বর্জন করতে বেসরকারি টেলিভিশন স্টেশনগুলোর প্রতিও আহ্বান জানানো হয় গণমাধ্যমকর্মীদের পক্ষ থেকে।
সোমবার বেলা ১২টার দিকে দেয়া ফেইসবুক স্ট্যাটাসে রনি বলেন, “সম্ভবত আমি পদত্যাগ করব।”
এর কারণ হিসাবে তিনি ওই স্ট্যাটাসে বলেন, “[আমাকে নিয়ে] যে ষড়যন্ত্র হচ্ছে তা সাধারণ মানুষ হিসেবে মোকাবেলা করা উচিৎ বলে মনে হচ্ছে।”
বাংলাদেশের গণমাধ্যম তার সাংসদ পদ এবং তার দলের ওপর রঙ চড়াতে পারে বলেও স্ট্যাটাস আপডেটে মন্তব্য করেন রনি।
তিনি এবং তার প্রতিপক্ষের জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরির জন্য গণমাধ্যমকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
রনির সাংবাদিক পেটানোর ঘটনায় তার দল আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিস্মিত ও ক্ষুব্ধ হয়েছেন বলে জানিয়েছেন দলটির নেতারা।
রনিকে আগামী সংসদ নির্বাচনে দলের মনোনয়ন দেয়া হবে না বলেও জানিয়েছেন তারা।