অক্সফোর্ড থেকে সরানো হলো সু চির ছবি

যুক্তরাজ্যে অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চির একটি ছবি সরিয়ে ফেলেছে। অক্সফোর্ড থেকে সম্মানসূচক একটি ডিগ্রি পাওয়ায় তাঁর ছবি সেখানে রাখা হয়েছিল।

বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে বলা হয়, রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমার সরকারের ধারাবাহিক নির্যাতনের ব্যাপারে সু চি তাঁর নিশ্চুপ ভূমিকার কারণে সমালোচিত হয়েছেন। এরই মধ্যে অক্সফোর্ড থেকে তাঁর ওই প্রতিকৃতি সরিয়ে ফেলা হলো।

অক্সফোর্ডের সেন্ট হিউ কলেজ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কলেজের প্রধান ভবনের প্রবেশদ্বার থেকে সু চির প্রতিকৃতি সরিয়ে ফেলা হয়েছে। এখন সেখানে জাপানের একটি চিত্রকর্ম রাখা হয়েছে। তবে ঠিক কী কারণে সু চির প্রতিকৃতি সরিয়ে ফেলা হয়েছে তা নিশ্চিত করে জানায়নি কর্তৃপক্ষ।

সেন্ট হিউ কলেজের যোগাযোগ ব্যবস্থাপক বেনজামিন জোনস বলেন, অং সান সু চির প্রতিকৃতিটি নিরাপদ স্থানে সরিয়ে ফেলা হয়েছে। সেখানে জাপানের চিত্রশিল্পী ইয়োশিহিরো তাকাদার একটি চিত্রকর্ম প্রদর্শন করা হবে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সেন্ট হিউ কলেজ থেকে ১৯৬৭ সালে স্নাতক ডিগ্রি নেন সু চি। ২০১২ সালে তাঁকে সম্মানসূচক একটি ডিগ্রি দেওয়া হয়।

এর আগে মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চির নোবেল শান্তি পুরস্কার ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য অনলাইন আবেদনে স্বাক্ষর করেছেন লক্ষাধিক মানুষ। দেশটির সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে ব্যাপক মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনার ব্যাপারে অবস্থান নিতে ব্যর্থ হওয়ায় ইন্দোনেশিয়া থেকে চেঞ্জ ডট অর্গে এই আবেদন জানানো হয়।