রংপুরে গাড়ি ভাংচুর-আগুন, হাতবোমা: আটক ৫

বার্তাবাংলা ডেস্ক :: দেশব্যাপী জামায়াতে ইসলামীর ডাকা সকাল-সন্ধ্যা হরতালে বুধবার রংপুরে চারটি ট্রাক ভাংচুর ও ২টি ট্রাকে আগুন দিয়েছে জামায়াত-শিবিরকর্মীরা।

এ সময় তারা বেশ কয়েকটি হাতবোমারও বিস্ফোরণ ঘটায়। এ ঘটনায় পুলিশ নগরীর বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে পাঁচ শিবির ক্যাডারকে আটক করেছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বুধবার সকালে জামায়াত-শিবিরকর্মীরা রংপুর-দিনাজপুর মহাসড়কের নগরীর দমদমা এলাকায় ২টি ট্রাকে আগুন দেয়। এরপর দর্শনা শুকটির মোড় এলাকায় আরো ৪টি ট্রাক ভাংচুর করে তারা। পরে তারা ৪-৫টি হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে পালিয়ে যায়।
কোতয়ালি থানার ওসি শাহাবুদ্দিন খলিফা জানান, গাড়ি ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ ও হাতবোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় পুলিশ নগরীর বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে নাশকতার অভিযোগে পাঁচ শিবির ক্যাডারকে আটক করেছে।
তারা হলেন- রেজাউল করিম, তোফাদ্দেক হোসেন, লিমন মিয়া, খলিলুর রহমান ও জুয়েল মিয়া। তাদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান ওসি।
এদিকে হরতালে রংপুরে বড় ধরনের কোনো সহিংসতার খবর পাওয়া যায়নি। দোকানপাট, স্কুল-কলেজ, অফিস-আদালত, ব্যাংক-বীমা সবই ছিল খোলা। দূরপাল্লার যানবাহন ছাড়া সব ধরনের যানবাহন চলাচল ছিল স্বাভাবিক।
অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে পুলিশ মোতায়েন আছে। পাশাপাশি র‌্যাব ও পুলিশের টহলও জোরদার রয়েছে।
প্রসঙ্গত, মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদের বিরুদ্ধে মামলার রায়ের তারিখ ঘোষণার ‘প্রতিবাদে’ বুধবার দেশব্যাপী সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালন করছে দলটি।