চলছে গণজাগরণ মঞ্চ ও জামায়াতের হরতাল

বার্তাবাংলা ডেস্ক :: জামায়াতে ইসলামীর সাবেক আমীর গোলাম আযমের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুন্যালের দেয়া রায় প্রত্যাখ্যান করে এই যুদ্ধাপরাধীর ফাসির দাবিতে মঙ্গলবার গণজাগরণ মঞ্চের দেশব্যাপী সকাল-সন্ধ্যা হরতাল চলছে। জামায়াতও গোলাম আযমের ৯০ বছর কারাদণ্ডের রায় প্রত্যাখান করে একই দিন দেশব্যাপী সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডেকেছে।

যাত্রাবাড়িতে হরতালের সমর্থনে দুটি জায়গায় বিক্ষোভ করে গাড়ি ভাংচুর ও আগুন দিয়েছে জামায়াত ও শিবিরের নেতাকর্মীরা। হরতালের শুরুতে ডেমরার রাণীমহলে দাড়িয়ে থাকা মাইক্রোবাসে আগুন দেয় জামায়াত শিবির কর্মীরা।

জগন্নাথ বাবুবাজার এলাকায় হরতালের সমর্থনে রাস্তায় আগুন দেবার ঘটনায়ও ঘটে।

মঙ্গলবার ভোর ৬ টায় যাত্রাবাড়ীর ডেমরায় হরতালের সমর্থনে শিবির নেতাকর্মীরা রাস্তায় বিক্ষোভ করে যানবাহনের উপর ঢিল ছুঁড়তে শুরু করে। পরে পুলিশ এসে ফাঁকা গুলি ছুড়ে শিবির নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। অন্যদিকে যাত্রাবাড়ির দনিয়া এলাকাতেও বিক্ষোভ করেছে শিবিরের নেতাকর্মীরা।

হরতালের কারণে মঙ্গলবার সকাল থেকেই রাজধানীতে যানবাহন চলাচল করছে অন্যান্য স্বাভাবিক দিনের তুলনায় কিছুটা কম। মানুষজনের আনাগোনাও রয়েছে কম।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে বিভিন্ন পয়েন্টে মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত পুলিশ। এছাড়া বাড়ানো হয়েছে গোয়েন্দা নজরদারী।

হরতালের সমর্থনে সোমবার রাতে রাজধানীতে মশাল মিছিল করেছে গণজাগরণ মঞ্চ। এদিন রাতে শাহবাগ থেকে মশাল মিছিলটি বের হয়ে বাংলামোটর, কারওয়ান বাজার, ফার্মগেট অতিক্রম করে শাহবাগে এসে শেষ হয়।

মিছিলে ছাত্র-শিক্ষক, সাংস্কৃতিককর্মী, প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনের নেতা কর্মীসহ নানা পেশার মানুষ অংশ নেন। মিছিল শেষে মঙ্গলবারের হরতালে সমর্থন দেয়ার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ডা.ইমরান এইচ সরকার।