ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন: জয় পাচ্ছেন উদারপন্থি রৌহানি

বার্তাবাংলা রিপোর্ট :: ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রাথমিক ফলাফলে উদারপন্থি নেতা হাসান রৌহানি এগিয়ে রয়েছেন। শনিবার গ্রিনিচমান সময় ১টা ৩০ মিনিটে আট লাখ ৬১ হাজার ৮৬৬টি ভোট গণনা করা হয়। শুক্রবার ভোট গ্রহণের শেষের সাত ঘণ্টা পর প্রকাশিত ওই ফলাফলে সাবেক পরমাণু আলোচক রৌহানি পেয়েছেন ৪৬ শতাংশের বেশি ভোট।

তেহরানের মেয়র মোহাম্মদ বাকের ঘালিবাফ এক লাখ ২৬ হাজার ৮৯৬ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছেন। তৃতীয় অবস্থানে রয়েছেন ইরানের প্রধান পরমাণু আলোচক ও সাঈদ জলিলি। তিনি পেয়েছেন এক লাখ ১৯ হাজার ২৯৪টি ভোট।

অভিজাত রেভল্যুশনারি গার্ডের সাবেক প্রধান মোহসেন রেজাই এক লাখ নয় হাজার ৮৯টি ভোট পেয়ে চতুর্থ অবস্থানে রয়েছেন। অন্য দুই প্রার্থী সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলি-আকবর ভেলায়াতি ও খুব কম আলোচিত সাবেক মন্ত্রী মোহাম্মদ ঘারাজি যথাক্রমে পেয়েছেন ৫৫ হাজার ৯৯০ ভোট ও ১৩ হাজার ৪৩১ ভোট।

নির্বাচনের আগে বিশ্লেষকেরা জানিয়েছিলেন, কট্টরপন্থি প্রার্থীরাই জয়ী হবেন। প্রাথমিক ফলাফলে বোঝা যাচ্ছে, যুক্তরাষ্ট্রের কট্টর সমালোচক ইরানের প্রেসিডেন্ট আহমাদিনেজাদের উত্তরসূরি হতে যাচ্ছেন উদারপন্থি রৌহানি।

শুক্রবার গ্রিনিচমান সময় সাড়ে ৩টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়। ভোটগ্রহণের ১০ ঘণ্টা পর তা শেষ হওয়ার কথা থাকলেও ভোট গ্রহণের সময় ৫ ঘণ্টা বাড়ানো হয়। ভোটকেন্দ্র ভোটারদের উপচে পড়া ভীড়ের কারণে সময় বাড়ানো হয় বলে জানায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ৭০ শতাংশের ওপর ভোট পড়েছে। তবে প্রাথমিক ফলাফলে, ২.৫ শতাংশ ভোট কম উল্লেখ করা হয়। ২০০৯ সালের নির্বাচনের চেয়ে ১৫ শতাংশ ভোট কম পড়েছে।
ভোটগ্রহণের শেষের পর ছয় প্রার্থীই যৌথভাবে নিজের সমর্থকদের শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।