বার্তাবাংলা ডেস্ক »

dr. ainun nishatমো. জাবিহুল আলম ভূঁইয়া :: বিশিষ্ট পরিবেশ বিজ্ঞানী ও ব্র্যাক বিশ্বাবিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর আইনুন নিশাত বলেছেন, জলবায়ু পরিবর্তনের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হলো আমাদের দেশে বিভিন্ন ঋতুতে যে অস্বাভাবিক পরিবর্তন হচ্ছে- তা মোকাবেলা করা। কারণ, দেখা যাচ্ছে শীত ঋতুতে বৃষ্টি হচ্ছে। আবার বর্ষাকালে বৃষ্টি না হয়ে গরমের প্রভাব দেখা যাচ্ছে। আর এর সবচেয়ে বেশী নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে উপকূলীয় ও চর এলাকায়। রাজধানীর ব্র্যাক ইন সেন্টারে গতকাল মঙ্গলবার ‘জলবায়ু পরিবর্তনে দারিদ্র্য বান্ধব সম্পদ ব্যবস্থাপনা’ শীর্ষক এক কর্মশালায় উন্মুক্ত আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।  বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ও ব্র্যাকের নির্বাহী পরিচালক ড. মাহবুব হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ব্র্যাকের গবেষণা ও মূল্যায়ন বিভাগের পরিচালক ড. ডব্লিও এম এইচ জেইম, চর ডেভোলাপমেন্ট অ্যান্ড সেটেলমেন্ট প্রজেক্ট-চার (সিডিএসপি) এর ডেপুটি টিম লিডার মো. জয়নাল আবেদিন, রুরাল ডেভোলাপমেন্ট অ্যান্ড কো-অপারেটিভ ডিভিশনের সাবেক সচিব ড. মিহির কান্তি মজুমদার প্রমূখ। অনুষ্ঠানে ‘জলবায়ু পরিবর্তনে দারিদ্র্য বান্ধব সম্পদ ব্যবস্থাপনা’ বিষয়ে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন চর ডেভোলাপমেন্ট অ্যান্ড সেটেলমেন্ট প্রজেক্ট- (সিডিএসপি) এর প্রোগ্রাম কো অর্ডিনেটিং পরিচালক মো. মাহফুজুর রহমান। একই বিষয়ে গবেষণা প্রাপ্ত ফলাফল উপস্থাপন করেন ব্র্যাকের গবেষণা ও মূল্যায়ন বিভাগের সিনিয়র রিসার্চ অ্যাসোসিয়েট মো. মাহবুবুর রহমান ও একই বিভাগের রিসার্চ অ্যাসোসিয়েট সিফাত-ই- রাব্বি এবং ইনস্টিটিউট ফর অ্যাডভান্সড সাসটিনেবিলিটি স্টাডিজ (আইএএসএস, জার্মানি) এর কর্মকর্তা জুডিথ রোসেন্ডাল।
আইনুন নিশাত তাঁর ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা তুলে ধরে বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে এখন চর ও উপকূলীয় এলাকায় লবণাক্ততা বেড়ে যাচ্ছে। এটাকে মোকাবেলা করতে আমাদের এখন অনেক বেশী গবেষণা প্রয়োজন। সভাপতির বক্তব্যে ড. মাহবুব হোসেন  গ্রামীণ পর্যায়ে  দুর্যোগ মোকাবেলায় সচেতনতা গড়ে তোলা ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মবিলাইজেশনের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »