কালিগঞ্জে এলাকাবাসীর সঙ্গে সংঘর্ষে পুলিশ সদস্য নিহত

বার্তাবাংলা ডেস্ক :: মাটি ভরাট করতে বাধা দেওয়ার মামলায় আসামি ধরতে গিয়ে পুলিশ-এলাকাবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে একজন পুলিশ সদস্য নিহত হয়েছেন। এছাড়া তিন পুলিশসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন।

শনিবার ভোর ৫টার দিকে গাজীপুর জেলার কালিগঞ্জ উপজেলার নাগরী ইউনিয়নের বড়গাঁও গ্রামে এই ঘটনা ঘটে‍।

নিহত পুলিশ সদস্য হলেন, কালিগঞ্জ থানার নায়েক (২৪৮) আজিজুর রহমান(৪৫)। পিতার নাম আব্দুল কুদ্দুছ। বাড়ি ময়মনসিংহ জেলার ফুলপুর থানার বাসকাহন গ্রামে।

আহত পুলিশ সদস্যদের মধ্যে কনস্টেবল আবু রায়হান (২৫) ও সাব্বির আহমেদ(২০) গাজীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আহত অপর পুলিশ সদস্যের পরিচয় জানা যায়নি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাজউকের মাটি ভরাট কাজে বাধা দেওয়ার ঘটনায় নাগরী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের সহ বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে কালিগঞ্জ থানায় মামলা হয়। শনিবার ভোরে পুলিশ বড়গাঁও গ্রামে সাইদুল ইসলাম নামে একজনকে আটক করে।

এরপর এলাকাবাসী গ্রামে ডাকাত পড়েছে বলে মাইকে ঘোষণা দিলে চারিদিক থেকে জনতা পুলিশকে ঘিরে ফেলে। আত্মরক্ষার জন্য পুলিশ ফাঁকা গুলি ছুড়ে। এ সময় পুলিশ-এলাকাবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে ৪ পুলিশসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হন।

আহত পুলিশ সদস্যদের হাসপাতালে নেওয়ার পথে শনিবার সকাল পৌনে ৬টার দিকে কালিগঞ্জ থানার নায়েক আজিজুর রহমান মারা যান। আহত অন্যানদের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, পুলিশ-এলাকাবাসী সংঘর্ষের পর ঘটনাস্থল এলাকায় বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। হতাহতের ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত আসামিদের খুঁজতে অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

কালিগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেছেন, হাসপাতালে নেওয়ার পথে আহত আজিজুর মারা যান।