দেশে আইনের শাসন নেই: ফখরুল

মির্জা ফখরুল

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘আজ দেশে গণতন্ত্র নেই, আইনের শাসন নেই, কারো জবাবদিহিতা নেই। এ অবস্থা চলতে থাকলে বাংলাদেশ একদিন অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত হবে।’

রবিবার বিকেল সাড়ে ৬টায় পীরগঞ্জ পৌর অডিটোরিয়ামে উপজেলা বিএনপির এক কর্মীসভায় তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘বিএনপির ২৬ লক্ষ লোকের বিরুদ্ধে মামলা ও ৫ শতাধিক নেতা কর্মীকে গুম করা হয়েছে। এ অন্যায় অত্যাচারের বিরুদ্ধে আমাদের আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে আর তা হবে বাঁচা-মরার লড়াই।’

বিএনপির নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, সুশৃঙ্খল কর্মীবাহিনী ও শক্তিশালী সংগঠন ছাড়া আন্দোলন সফল হয় না। তাই যে কোন মূল্যে নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থেকে দল কে শক্তিশালী করতে হবে।’

আমরা মনে করি এ সংসদ জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয়, এ সংসদ বৈধ নয়। এ সরকারও বৈধ নয়। কিন্তু রাজনৈতিক দল হিসেবে, জনগণের কাছে যাওয়ার জন্য, গণতন্ত্রের কথা বলার জন্য, আমাদের জায়গা এখন খুব কমে এসেছে।

সভা ও মিছিল করতে গেলেই পুলিশ ধরে নিয়ে যায় এবং মামলা ঠুকে দেয়। কিন্তু সংসদ সদস্যদের বিরুদ্ধে সহজে মামলা হয় না। সংসদে সব কথা বলা যায়। তাই দেশ নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং জনগণের ও গণতন্ত্রের কথা বলতে শেষ মুহূর্তে বিএনপি সংসদে গেছে।

পীরগঞ্জ সিনিয়র সহ-সভাপতি একেএম মইনুল হোসেন সোহাগ এর সভাপতিত্বে কর্মীসভায় আরও বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর রহমান, পীরগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল ইসলাম জিয়া, পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রাজা প্রমুখ।