৯৯৯ নম্বরে বাসযাত্রীর ফোন পেয়ে হাজির ম্যাজিস্ট্রেট

বাস

নানা বাড়ি থেকে ঈদ করে ঢাকার মিরপুরের বাসায় ফিরছিলেন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী দীপ্ত সিংহ। সোমবার বিকেলে পাটুরিয়া ঘাট থেকে পদ্মা লাইন পরিবহনের একটি বাসে ওঠেন তিনি।

বাসের ওঠার সময় ঘাটে কর্মরত পুলিশ সদস্যরা ঢাকার ভাড়া জনপ্রতি ২০০ টাকা নেয়ার কথা বললেও রাস্তায় এসে প্রতিজনের কাছে ৪০০ টাকা ভাড়া দাবি করেন বাসের সুপারভাইজার ও চালক। সেই সঙ্গে ৪০০ টাকা ভাড়া নিয়ে বাড়াবাড়ি করেন বাসের চালক ও সুপারভাইজার।

এ অবস্থায় ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী দীপ্ত সিংহ জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিয়ে বেশি ভাড়া আদায়ের বিষয়টি জানান।

মানিকগঞ্জ জেলা ট্রাফিক ইন্সপেক্টর (টিআই) গোলাম আম্বিয়া বলেন, জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে বিষয়টি জানানো হলে মানিকগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডে গিয়ে পদ্মা লাইন পরিবহনের বাসটি আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগে বাসটিকে পাঁচ হাজার ৩০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

মানিকগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মামুন সরদার ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ওই বাসকে জরিমানা করেন। একই সঙ্গে যাত্রীদের কাছ থেকে নেয়া অতিরিক্ত ভাড়া ফেরত দেয়ার নির্দেশ দেন।