ইসিতে দেড় লাখ ইভিএম

ইভিএম

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কাছ থেকে দেড় লাখ ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) বুঝে নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ইভিএমের সাবেক প্রকল্প পরিচালক ও ইসির এনআইডি শাখার মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি  বলেন, ‘আমাদের দেড় লাখ ইভিএম মেশিন ডিমান্ড (চাহিদা) দেয়া ছিল। যদি বলি, দেড় লাখ ইভিএম মেশিনই কিন্তু চলে এসেছে।’

সদ্য অনুষ্ঠিত ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে সব কেন্দ্রে ইভিএমের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। আগামী ২৪ জুন বগুড়া-৬ আসনের নির্বাচনেও সব কেন্দ্রে ইভিএম ব্যবহার হবে।

তিনি বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনের চুক্তি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সঙ্গে। আর সেনাবাহিনীর চুক্তি করেছে বাংলাদেশ মেশিন টুলস ফ্যাক্টরির (বিএমটিএফ) সঙ্গে। আমরা শুধু মেশিনগুলো সেনাবাহিনীর কাছে থেকে বুঝে নিয়েছি। সরকার এ সংক্রান্ত অর্থ সেনাবাহিনীকে হস্তান্তর করবে।’

সেনাবাহিনী ইভিএমের মান নিশ্চিত করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘ইভিএমে যদি কোনো ভুল কেউ বের করতে পারে আগে বলতাম এক লাখ টাকা দেব, এখন বলি ১০ লাখ টাকা পুরস্কার দেব।’

‘এটা নিয়ে কথা অনেকেই বলতে পারে। কিন্তু কথা বললে হবে না, যৌক্তিক তথ্যসহ বলতে হবে’- যোগ করেন সাইদুল ইসলাম।

উল্লেখ্য, নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারে বিএনপিসহ অধিকাংশ রাজনৈতিক দল বিরোধিতা করে আসছে। অপরদিকে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগসহ কিছু রাজনৈতিক দল ইভিএমের পক্ষে রয়েছে।