ভূমধ্যসাগরে নৌকা ডুবে ইতালি প্রবাসীর ভাই নিখোঁজ

স্বপ্নের দেশ

স্বপ্নের দেশ ইউরোপে পাড়ি জমাতে গিয়ে ভূমধ্যসাগরে সাগরে নৌকা ডুবিতে ইতালি প্রবাসী এক বাংলাদেশির চাচাতো ভাই নিখোঁজ রয়েছেন। নিখোঁজ ব্যক্তির নাম উত্তম কুমার দাস। তার সন্ধান চেয়ে কমল দাস এখন বেদনায় বিমূঢ়।

কোথায় গেলে কার কাছে গেলে সন্ধান পাবেন ভাইয়ের, এই জবাব নেই তার কাছে। ভাগ্য পরিবর্তনের আশায় ইউরোপের সোনার হরিণ ধরতে গিয়ে নিজেই এখন অজানা ঠিকানায়। কেউ জানে না বেঁচে আছে না মরে গেছে। ইউরোপে আসার রঙিন স্বপ্ন ধূলিসাৎ হয়ে নিরুদ্দেশ উত্তম দাসসহ আরও অনেকে।

এ ব্যাপারে কমল দাস বলেন, ওই নৌকায় ৮৪ জন যাত্রী ছিল। একই এলাকা নড়িয়ার ছয়-সাতজনের মধ্যে দুইজনকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। একজন মিন্টু অন্যজন শিশির মকদম। বর্তমান তারা তিউনিসিয়ায় অবস্থান করছেন।

তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে লিবিয়া থেকে ইতালির উদ্দেশ্য রওনা দিলে তিউনিসিয়া এসে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে উত্তমসহ অন্য অভিবাসীরা। বর্তমান তার পরিচিত তিনজন নিখোঁজ। তারা হলেন- চাচাতো ভাই উত্তম কুমার দাস বাবা গৌতম দাস, জুম্মন হাওলাদার বাবা হারুন হাওলাদার ও সুমন। তার (সুমন) বাবার নাম জানা যায়নি।

নিখোঁজ উত্তম কুমারের দেশের বাড়ি শরীয়তপুরের নড়িয়া থানার চাকধ গ্রামে। একই এলাকার ৬/৭ জনের মধ্যে দুইজনের খোঁজ পাওয়া গেছে বাকিরা এখনও নিখোঁজ।

এদিকে উত্তমের পরিবার এখনও আশায় আছেন সে জীবিত পরিবারের কাছে ফিরে আসবে।

উল্লেখ্য, লিবিয়া থেকে বাংলাদেশিসহ ৮৪ অভিবাসী ইউরোপ যাওয়ার পথে নৌকা ডুবলে ১৬ জনকে জীবিত উদ্ধার করা বাকিরা এখনও নিখোঁজ রয়েছে। ঘটনার পর থেকে উদ্ধার কাজ অব্যাহত রয়েছে।