৪ মে সংসদ ভবনের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচী গণজাগরণ মঞ্চের » Leading News Portal : BartaBangla.com

বার্তাবাংলা ডেস্ক »

jagoron monchবার্তাবাংলা ডেস্ক :: জামায়াত নিষিদ্ধের দাবিতে সংসদ ভবনের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছে গণজাগরণ মঞ্চ।

পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে রোববার সন্ধ্যায় গণজাগরণ মঞ্চের উদ্যোগে আয়োজিত মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলন কর্মসূচির সময় এ ঘোষণা দেন গণজাগরণ মঞ্চের সমন্বয়ক ইমরান এইচ সরকার।

৪ মে বিকেল ৪টায় সংসদ অধিবেশন চলাকালীন সময় সংসদ ভবনের সামনে এ মানববন্ধন করা করা হবে।

এছাড়া ডা: ইমরান বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তি ও জামায়াত ইসলাম নিষিদ্ধসহ ছয় দফা দাবিতে ২০ এপ্রিল থেকে ৪ মে সারা দেশে গণসংযোগ চালাবে গণজাগরণ মঞ্চ। ডা: ইমরান দাবিগুলো পড়ে শোনান, দাবিগুলো হচ্ছে: জামায়াত ইসলাম নিষিদ্ধের দাবিতে ২৯ এপ্রিল সকাল ১১টায় আইন মন্ত্রণালয়ের সামনে গণ অবস্থান কর্মসূচি পালন করবে গণজাগরণ মঞ্চ।

১ মে আন্তর্জাতিক শ্রমিক অধিকার দিবসে শাহবাগের প্রজন্ম চত্বরে শ্রমিক মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। এর আগে রবিবার বিকাল ৫:৩০ মিনিট থেকে ৫:৩৩ মিনিট পর্যন্ত তিন মিনিট লাখো মানুষের অংশগ্রহণে হাতে হাত বেঁধে সম্প্রীতির বন্ধন সফল ভাবে সম্পন্ন করে তরুণ যুবারা। সন্ধ্যা ৭:৩০ মিনিটে মঙ্গলপ্রদীপ ও মোমবাতি জ্বালিয়ে সব অপশক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর প্রত্যয় জানায় সমাবেশে আগত জনতা।

পহেলা বৈশাখের বর্ষবরণ উপলক্ষে রবিবার সকাল ৬টায় গণজাগরণ মঞ্চ রমনা বটমূলে ছায়ানটের বর্ষবরণ অনুষ্ঠান এবং সকাল ৯টায় চারুকলা অনুষদে আয়োজনে মঙ্গল শোভাযাত্রায়ও অংশ নেয়।

এ সময় দেওয়া বক্তব্যে ইমরান এইচ সরকার বলেন, “বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখকে দমিয়ে দেওয়ার জন্য ২০০১ সালের রমনা বটমূলে বোমা হামলা চালানো হয়েছিল। আমরা দীর্ঘদিন থেকে জামায়াত-শিবির রাজনীতি নিষিদ্ধের দাবি জানিয়ে আসছি। কিন্তু সরকার তা না করে উল্টো মত প্রকাশের দায়ে ব্লগারদের গ্রেফতার করেছে।”

এছাড়া ফটিকছড়িতে হরতাল বিরোধী মিছিলে জামায়াত-শিবিরের হামলায় হতাহতের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে ইমরান বলেন, তাদের রাজনীতি নিষিদ্ধে সরকার কার্যকর উদ্যোগ নিলে এ রকম ঘটনা ঘটত না।

এ সময় তিনি জামায়াতের রাজনীতি নিষিদ্ধ সহ অবিলম্বে ৬ দফা বাস্তবায়নের দাবি জানান।

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

মন্তব্য করুন »