বার্তাবাংলা ডেস্ক »

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় সাত বছরের শিশুকে ভিডিও দেখানোর কথা বলে মুখ বেঁধে ধর্ষণচেষ্টার মামলায় এক বখাটে যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতার যুবকের নাম সুমন (২০)।

শুক্রবার (১৫ মার্চ) রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া নাসিরনগর থেকে তাকে গ্রেফতার করে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ।আটক সুমন ফতুল্লার তল্লা এলাকার চেয়ারম্যান বাড়ির ভাড়াটিয়া বাবুল মিয়ার ছেলে। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া নাসিরনগরের স্থায়ী বাসিন্দা।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) রাতে তল্লা এলাকার চেয়ারম্যান বাড়ির ভাড়াটিয়া গার্মেন্টকর্মী এক নারী তার সাত বছরের শিশুকে মুখ বেঁধে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ এনে সুমনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের অফিসার-ইনচার্জ (ওসি) শাহ মোহাম্মদ মঞ্জুর কাদের সুমনকে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ভিডিও দেখানোর কথা বলে ওই শিশুকে সুমন নিজের ঘরে নিয়ে যায় এবং মুখ বেঁধে ধর্ষণচেষ্টা চালায়। ঘটনাটি দেখতে পেয়ে শিশুর মা চিৎকার দিলে আশপাশের লোকজন ছুটে এলে বখাটে যুবক পালিয়ে যান। শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা চালাতে বলপ্রয়োগ করা হয়। এতে শিশুটি রক্তাক্ত জখম হয়েছে। এ ঘটনায় ফতুল্লা থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে শুক্রবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া নাসিরনগরের সুমনের অবস্থান শনাক্ত করে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। শনিবার (১৬ মার্চ) তাকে আদালতে পাঠানো হবে।

 

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »