বার্তাবাংলা ডেস্ক »

লার চরফ্যাশন উপজেলায় জ্যোৎস্না বেগম নামে এক গৃহবধূ এক সঙ্গে তিন সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। সোমবার বিকেলে পর পর তিন সন্তানের জন্ম দেন তিনি। প্রসূতি জ্যোৎস্না বেগম উপজেলার নজরুলনগর ইউপি সদস্য সবুজ মৃধার স্ত্রী।

বর্তমানে তিনি এবং নবজাতকরা চরফ্যাশন হাসপাতাল রোডের সেন্ট্রাল জেনারেল হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ডা. শাহিন আরা আহমেদ ও ডা. নূর মোহাম্মদ তালুকদারের অধীনে চিকিৎসাধীন। শিশুরা সুস্থ আছেন বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পাঁচ ছেলের পর মেয়ের আশায় ফের সন্তান নেন সবুজ-জ্যোৎস্না দম্পতি। সোমবার বিকেলে চরফ্যাশনের নজরুলনগর ইউনিয়নের দক্ষিণ চরকলমী গ্রামের মৃধাবাড়িতে একটি ছেলে সন্তান এবং সেন্ট্রাল জেনারেল হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এসে আরও এক ছেলে ও মেয়ে সন্তান জন্ম দেন জ্যোৎস্না বেগম।

ইউপি সদস্য সবুজ মৃধা জানান, তাদের আরও পাঁচটি ছেলে সন্তান আছে। কন্যা সন্তানের আশায় আবারও সন্তান নিয়েছেন তারা। সোমবার বিকেলে নিজ বাড়িতে দাইয়ের সহায়তায় একটি ছেলে সন্তানের জন্ম হয়। পরে প্রসব সমস্যা দেখা দিলে আম্ব্যুলেন্সে স্ত্রীকে সেন্ট্রাল জেনারেল হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে গেলে এক মেয়ে ও এক ছেলে সন্তান জন্ম নেয়। একসঙ্গে মেয়েসহ দুই পুত্র সন্তান পেয়ে স্বামী-স্ত্রী উভয়ে খুশি।

চরফ্যাশন হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. শাহিন আরা আহমেদ জানান, প্রসূতি গৃহবধূ শুরু থেকে তার তত্ত্বাবধানে ছিলেন। ২৬ সপ্তাহ সময় কালে আল্ট্রাসনোগ্রামে তিন সন্তানের বিষয়টি নিশ্চিত হন তারা। কোনো প্রকার সিজার ছাড়াই স্বাভাবিকভাবে শিশু তিনটি ভূমিষ্ঠ হয়েছে। মা ও নবজাতকরা সুস্থ আছে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »