বার্তাবাংলা ডেস্ক »

ডাকসু নির্বাচনেও জাতীয় নির্বাচনের ছায়া পড়েছে বলে অভিমত জানিয়েছেন বাম গণতান্ত্রিক জোটের নেতারা।তারা বলেন, ভোট কারসাজি নিয়ে শিক্ষার্থীদের আশঙ্কাই সত্য প্রমাণিত হলো। তারা এ ধরনের ঘটনার তীব্র নিন্দার পাশাপাশি পুনর্নির্বাচন দাবি করেন।

বাম গণতান্ত্রিক জোট কেন্দ্রীয় পরিচালনা পরিষদের সমন্বয়ক বাসদ নেতা বজলুর রশীদ ফিরোজ ও পরিচালনা পরিষদের সদস্য মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, খালেকুজ্জামান, শাহ আলম, মুবিনুল হায়দার চৌধুরী, শুভ্রাংশু চক্রবর্ত্তী, সাইফুল হক, আকবর খান, জোনায়েদ সাকি, ফিরোজ আহম্মেদ, মোশাররফ হোসেন নান্নু, অধ্যাপক আব্দুস সাত্তার, মোশরেফা মিশু ও হামিদুল হক এক যুক্ত বিবৃতিতে এসব কথা বলেন।

বিবৃতিতে বলা হয় ১১ মার্চ দীর্ঘ প্রতীক্ষিত ডাকসু নির্বাচনে ভোট শুরুর আগেই ব্যালট পেপারে ভোট দিয়ে বস্তা ভর্তি করা, স্বচ্ছ ব্যালট বাক্স ব্যবহার না করা, সকালে ব্যালট পেপার পাঠানোর কথা বলে রাতেই পাঠিয়ে দেয়াসহ নানা অনিয়ম জালিয়াতির ঘটনা ঘটেছে। যা সাধারণ শিক্ষার্থীদের অধিকার বঞ্চিত করেছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, ছাত্র সমাজের দীর্ঘ দিনের দাবি ও হাইকোর্টের নির্দেশে সরকার বাধ্য হয় ডাকসু নির্বাচন দিয়েছে। কিন্তু শুরু থেকেই বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন নানা অনিয়মের আশ্রয় নেয়, প্রথমত বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রকাশ্যে শিক্ষকদের তিনটি ধারা থাকার পরও এককভাবে সরকার সমর্থক শিক্ষকদের নিয়ে গঠনতন্ত্র সংশোধন কমিটি, রিটার্নিং অফিসার নিয়োগ ও আচরণবিধি প্রণয়ন কমিটি গঠন করা হয় যা শিক্ষার্থীদের কাছে পক্ষপাতিত্বমূলক বলে মনে হয়েছে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »