বার্তাবাংলা ডেস্ক »

khulna hartal violenceবার্তবাংলা রিপোর্ট :: আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কড়া নিরাপত্তার মধ্যে খুলনায় জামায়াতের ডাকা সকাল-সন্ধ্যা হরতাল চলছে। সকালেই ১৩টি গাড়ি ভাংচুর ও ৫টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে পিকেটাররা। জেলার ফুলতলা এবং অন্যান্য উপজেলার বিভিন্ন স্থানে এ ঘটনা ঘটে। ভোর সাড়ে সাতটার দিকে ফুলতলায় মিছিল সহকারে খুলনা-ঢাকা সড়ক অবরোধ করে টায়ারে অগ্নিসংযোগ কওে হরতাল সমর্থকরা। এ সময় তারা নতুন হাট, যুগনিপাশা, বুড়িয়াডাঙ্গা ও এমএম কলেজের সামনে ৭টি বাস, ৪টি ট্রাক ও ২টি মাইক্রোবাস ভাংচুর করে এবং আতঙ্ক সৃষ্টির জন্য ৫টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। পরে পুলিশের ঘটনাস্থলে পৌছলে তারা পালিয়ে যায়। অপরদেকে সকাল সাড়ে ৬টায় বসুপাড়ার আলামিন গলিতে সোনাডাঙ্গা থানা জামায়াত একটি মিছিল বের করে। উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার শিবিরের হরতাল চলাকালে ডুমুরিয়া উপজেলার চেচুরিয়ায় পুলিশ-শিবির সংঘর্ষে মনসুর আলী গাজী নামের এক জামায়াত কর্মী নিহতের প্রতিবাদে সকাল-সন্ধ্যার এ হরতাল পালন করছে খুলনা জেলা ও মহানগর জামায়াত। তবে জামায়াতের ডাকা হরতালে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা আওতামুক্ত রয়েছে।  নগরীতে বিচ্ছিন্নভাবে কিছু রিকশা ও ভ্যান চলতে দেখা গেলেও দূরপাল্লার কোনো পরিবহন ছাড়েনি। তবে ট্রেন এবং লঞ্চ নির্ধারিত সময়ে ছেড়েছে বলে নিশ্চিত করেছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »