বার্তাবাংলা ডেস্ক »

Dating App

চীনের সিনোভ্যাক কম্পানির পর এবার বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের টিকা পরীক্ষার প্রক্রিয়া শুরু করেছে ভারতের সরকারি প্রতিষ্ঠান ‘ভারত বায়োটেক’। এরই মধ্যে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কাছে এসংক্রান্ত চিঠি এসেছে। এ ছাড়া রাশিয়ায় এরই মধ্যে উৎপাদিত টিকা সরকারিভাবে কিনে আনার ব্যাপারেও প্রক্রিয়া চলছে। স্বাস্থ্যসেবা সচিব মো. আব্দুল মান্নান গতকাল বুধবার রাতে কালের কণ্ঠকে এ তথ্য জানান।

সচিব বলেন, ‘আমরা দ্রুতগতিতে ভেকসিন (টিকা) সংগ্রহ ও ট্রায়ালের (পরীক্ষা) ব্যাপারে কাজ করে যাচ্ছি। যারাই আমাদের এখানে ট্রায়াল করতে চাইবে আমরা সেগুলো বিবেচনা করে দেখব। সব কিছু ঠিক থাকলে আমরা অনুমতি দেব, আর না থাকলে দেব না। ভারত বায়োটেক আমাদের এরই মধ্যে প্রয়োজনীয় বিভিন্ন ধরনের কাগজপত্র পাঠিয়েছে; আমরা সেগুলো পর্যালোচনা করছি।’ তিনি জানান, রাশিয়ার টিকা বাংলাদেশে পরীক্ষার প্রয়োজন হবে না। শুধু আমদানি করলেই চলবে। তবে যদি কোনো ব্যক্তিমালিকানাধীন কম্পানি যোগাযোগের মাধ্যমে এখানে উৎপাদনের অংশীদার হতে পারে, সেটা ভিন্ন ব্যাপার। এ ছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের টিকার ব্যাপারে বেসরকারি কোনো কোনো প্রতিষ্ঠান হয়তো যোগাযোগ করছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে ইউনিসেফের পক্ষ থেকে এরই মধ্যে বাংলাদেশসহ কোভেক্স তালিকাভুক্ত অন্য দেশগুলোতে করোনার টিকা সরবরাহের দায়িত্ব নিয়েছে। সংস্থাটি প্রতিটি দেশের সরকারের সঙ্গে প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া অনুসরণ করে এই দায়িত্ব পালন করবে বলে ইউনিসেফের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ সরকারকে জানানো হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক ( মা ও শিশু) ডা. শামসুল হক এ তথ্য জানিয়েছেন।

অন্যদিকে অক্সফোর্ডের করোনার টিকা পরীক্ষার পর্যায়ে একজন গ্রহীতা গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে পরীক্ষা সাময়িক স্থগিত হওয়ায় বাংলাদেশে আলাদা কোনো প্রভাব পড়বে না বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনির্ণয় ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. এ এস এম আলমগীর কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘যেকোনো ট্রায়ালের ক্ষেত্রেই এটি নিয়ম। এখন যদি দেখা যায় ওই ব্যক্তির অসুস্থতা অন্য কোনো কারণে বা তাঁর অসুস্থতায় ভেকসিনের তেমন কোনো প্রভাব নেই, তবে যেকোনো মুহূর্তে ওই স্থগিতাদেশ তুলে নেওয়া হবে।’

ওই বিশেষজ্ঞ আরো বলেন, ‘ট্রায়ালের প্রটোকল অনুসারে এটি খুবই স্বাভাবিক। ট্রায়ালের আওতায় যাঁরা পরীক্ষামূলকভাবে ভেকসিন গ্রহণ করছেন, তাঁদের বহু কমিটি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে। ভেকসিন গ্রহণকারীর কারো যেকোনো ধরনের অসুস্থতা বা অস্বাভাবিক প্রতিক্রিয়া দেখা দিলেই প্রটোকল অনুসারে ট্রায়াল স্থগিত করতে হবে—এমনকি এর মধ্যে কেউ যদি সড়ক দুর্ঘটনায়ও আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন, তাহলেও।’

Dating App
শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »