ফারজানা তন্বী »

Dating App

‘আওয়ামী লীগ সরকার মানে পদ্মাসেতু, হলমার্কের দুর্নীতি। আওয়ামী লীগ মানে হলো ক্যাসিনোর সঙ্গে সম্পর্কিত রাজনৈতিক দল। আওয়ামী লীগ মানে হচ্ছে জেকেজি, রিজেন্ট হাসপাতাল।’আজ শনিবার (১৫ আগস্ট) সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের নিচে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে এসব কথা বলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

‘বিএনপি দুর্নীতির পৃষ্ঠপোষক’ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের জবাবে রিজভী বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকার মানে পদ্মাসেতু, হলমার্কের দুর্নীতি। আওয়ামী লীগ মানে হলো ক্যাসিনোর সঙ্গে সম্পর্কিত রাজনৈতিক দল। তাদের গুরুত্বপূর্ণ নেতারা এর সঙ্গে জড়িত। আওয়ামী লীগ মানে হচ্ছে জেকেজি, রিজেন্ট হাসপাতাল। আওয়ামী লীগ মানে করোনার মিথ্যা ভুয়া সার্টিফিকেট দেওয়া। আর ওবায়দুল কাদের সাহেব বলেছেন, দুর্নীতি আর বিএনপি সমার্থক। তাহলে করোনার এ মিথ্যা সার্টিফিকেট কী বিএনপির আমলে দেওয়া হয়েছিল? পদ্মাসেতু, হলমার্ক, ক্যাসিনো, রিজেন্ট, জেকেজির কেলেঙ্কারি কী বিএনপির আমলে হয়েছিল?’

জাল করোনা সার্টিফিকেট, নকল মাস্ক সরবরাহের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘কয়েকদিন আগেও দেখা গেছে আওয়ামী লীগের একজন গুরুত্বপূর্ণ নেতা নকল মাস্ক আমদানির সঙ্গে জড়িত। আজকেও আছে। অনলাইন খুলে দেখেন। আপনারা বড় বড় কথা বলছেন, আয়নার সামনে গিয়ে দাঁড়ান। কতো কেলেঙ্কারি, কতো দুর্নীতি। আপনাদের এ দুর্নীতি নিয়ে যদি নাটক করা হয় সেটা হবে বিখ্যাত নাটক। একটা সরকার জোর করে ১২ বছর ক্ষমতায় থেকে জনগণের টাকাকে কীভাবে লুট করেছে সেটা ওই নাটকে ফুটে উঠবে।’

রিজভী বলেন, ‘বৃহত্তর ফরিদপুর তারা বলে তাদের একেবারে ঘাঁটি। সেই ফরিদপুর পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক শত শত কোটি টাকা বানিয়েছে, পাচার করেছে। ফরিদপুরের মতো জেলা শহরে বিএমডাব্লিউ গাড়ি চালায়। তারা কারা, থানা পর্যায়ের-পৌরসভা পর্যায়ের নেতারা দুর্নীতি করে এতো টাকা উপার্জন করেছে। তাহলে জাতীয় নেতারা কী করেছে?’

রিজভী অভিযোগ করেন, ‘দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে একটা মিথ্যা মামলায় সাজা দেওয়া হয়েছে শুধু প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার জন্য। তিনি কারাগারের বাইরে কিন্তু সম্পূর্ণরূপে মুক্ত নন। আজকে অসুস্থ অবস্থায় দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সুদূর যুক্তরাজ্য থেকে দল পরিচালনা করছেন। আমরা একটা দুঃসময় অতিবাহিত করছি।’

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, স্বেচ্চাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল, ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সাত্তার পাটোয়ারী প্রমুখ। পরে খালেদা জিয়ার সুস্থতা এবং করোনায় মৃত দলীয় নেতাকর্মীদের জন্য দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

Dating App
শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »