ইয়াসমিন লিপি »

পাঠাওয়ের সহ প্রতিষ্ঠাতা তরুণ উদ্যোক্তা ফাহিম সালেহ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় গ্রেপ্তার হওয়া টাইরেস ডেভোঁ হ্যাসপিলকে আজ আদালতে হাজির করার কথা রয়েছে। তার বিরুদ্ধে সেকেন্ড ডিগ্রি মার্ডারের অভিযোগ আনা হয়েছে।
শুক্রবার নৃশংস এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার অপরাধে হ্যাসপিলকে গ্রেপ্তার করা হয়। ফাহিম সালেহর ব্যক্তিগত সহকারী হিসেবে কাজ করেছেন টাইরেস ডেভোঁ হ্যাসপিল। ফাহিমের বিপুল পরিমাণ অর্থ টেরেস ডেভোন চুরি করেছেন বলে আপাতত জানানো হয়েছে।

পুলিশ জানায়, গ্রেপ্তার টাইরেস ডেভোঁ হ্যাসপিল ব্রুকলিনে বড় হয়েছেন। নিউইয়র্কের হাফস্ট্রা ইউনিভার্সিটিতে লেখাপড়া করেছেন। নিজেও প্রযুক্তি জগতের লোক। ১৬ বছর বয়স থেকেই ফাহিম সালেহর সঙ্গে তিনি কাজ করেছেন। তাঁর নিজেরও একটি কোম্পানি আছে। পুলিশ ফাহিম সালেহর ফোনের খুদে বার্তার সূত্র ধরেই এসব জানতে পেরেছে।

কোম্পানি থেকে অর্থ হাতিয়ে নিলেও ফাহিম সালেহ টাইরেস ডেভোঁ হ্যাসপিলের নামে কোনো মামলা করেননি। টাইরেস ডেভোঁ হ্যাসপিলকে কিস্তিতে অর্থ পরিশোধের সুযোগ দিয়েছেন এমন প্রমাণ পেয়েছে পুলিশ।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »