ইয়াসমিন লিপি »

Dating App

শনিবার (৪ জুলাই)দুপুর আড়াইটার দিকে করোনা কোভিড-১৯ নিয়মিত অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (মহাপরিচালকের দায়িত্বপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা। তিনি জানান, কোভিডে মোট মারা গেছেন ১৯৯৭ জন। মোট শনাক্ত হয়েছেন ১ লক্ষ ৫৯ হাজার ৬৭৯ জন। মৃতদের মধ্যে ২১ জন পুরুষ ও ৮ জন নারী। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১.২৫ শতাংশ। ঢাকা বিভাগে ৯ জন চট্টগ্রামের ৪ জন এবং অন্যান্য বিভাগের ১৬ জন।

তিনি জানান, বয়স ভিত্তিক বিশ্লেষণে ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে ২ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে ১ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ১১ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৯ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৪ জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ১ জন এবং ০ থেকে ১১ বছরের মধ্যে ১ জন। হাসপাতালে মারা গেছেন ২৫ জন বাসায় ১ এবং মৃত অবস্থায় হাসপাতালে গেছেন ৩ জন। এখন পর্যন্ত মোট ১ হাজার ৫৮৭ জন পুরুষ এবং ৪১০ জন নারী মৃত্যুবরণ করেছেন।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা এবং ঢাকার বাইরে মোট ৬৪টি ল্যাবে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৩৮৭১ জনের। আর নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৪৭২৭ জনের। সব মিলিয়ে এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৮ লাখ ৩২ হাজার ৭৪ জনের। শনাক্তের হার ২২ দশমিক ৩৩ শতাংশ এবং এপর্যন্ত শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ১৯ শতাংশ। নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২৬৭৩ জন, মোট সুস্থ হয়েছেন ৭০৭২১ জন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৪৪ দশমিক ২৯ শতাংশ।

অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনের নেওয়া হয়েছে ৭৪৪ জনকে। বর্তমানে আইসোলেশনের আছেন ৩০ হাজার ১২৩ জন। এছাড়া আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ২৪২ জন, এ পর্যন্ত মোট ছাড় পেয়েছেন ১৩ হাজার ৬৭৪ জন। বর্তমানে মোট আইসোলেশনে আছেন ১৬ হাজার ৪৪৯ জন।

দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রথম শনাক্ত হয় গত ৮ মার্চ। আর গত ১৮ মার্চ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। এরপর থেকে দিনে দিনে এর সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে।

Dating App
শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »