ইয়াসমিন লিপি »

Dating App

করোনাকালে ঘরে বসে থাকতে হচ্ছে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের। বিশেষ করে ইংল্যান্ড সফরের আগে দলের ১০ সদস্যের করোনা পজিটিভ হওয়ার খবরে পুরো দলেই এখন করোনা আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। দলের প্রায় সদস্য তাই এই সময়টা ঘরে বসেই কাটাচ্ছেন।

যেহেতু ঘরে বসেই সময় কাটছে, তাই সময়টা ভিন্নভাবে কাজে লাগানোর চেষ্টা করছেন পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা। এই যেমন শোয়েব মালিক। অনেকটা বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবালের মতোই ভিডিও আড্ডার আয়োজন করছেন তিনি। সেই ভিডিও আড্ডাতেই এক মজার ঘটনা ঘটল।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ‘প্রশ্নোত্তর’পর্ব নিয়ে হাজির হয়েছেন শোয়েব মালিক। পাকিস্তানি অলরাউন্ডারের ভিডিও আড্ডা এখন পর্যন্ত তিন পর্বে পৌঁছেছে। সর্বশেষ পর্বে হাজির হয়েছিলেন পাকিস্তানের ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক বাবর আজম। সেখানে দুজনে মিলে ক্রিকেট ও ক্রিকেটের বাইরের অনেক বিষয় নিয়েই আড্ডা দিয়েছেন।

মালিকের সঙ্গে আড্ডায় নিজের উত্থানের গল্প বলেছেন বাবর। নিজেকে কীভাবে বিশ্বসেরার কাতারে তুলে এনেছেন তা নিয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছেন। তবে কথার এক ফাঁকে শোয়েব জানতে চান, ‘হৃদয় ভাঙছ কবে?’ মানে বিয়ে করার কথা জানতে চাইলে মজার ছলেই বাবরের উত্তর, ‘মনটা আপাতত অখণ্ড রাখতে চাই।’

আলোচনার এক পর্যায়ে বাবরের কাছে শোয়েব জানতে চান, ‘এই শো তোমার ভাবিরাও দেখছে। তোমার প্রিয় ভাবি কে?’ উত্তরে পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদের স্ত্রী সৈয়দা খুশবখতের নাম নেন বাবর। উত্তর জানানোর সঙ্গে সঙ্গে বাকিসব ভাবিরা রীতিমত তেলেবেগুনে জ্বলে ওঠেন। বিশেষ করে ভারতীয় টেনিস তারকা ও শোয়েব মালিকের স্ত্রী সানিয়া মির্জা।

বাবরের উত্তরে খেপে গিয়ে সানিয়া মির্জা লেখেন, ‘আমি তোমাকে মেরে ফেলব।’ শুধু তাই না, আর কখনো নিজেদের সোফায় বাবরকে শুতে দেবেন না বলেও জানিয়ে দেন তিনি।

সানিয়ার পর সাবেক ক্রিকেটার আজহার আলীর স্ত্রী এবা কুরেশি কপট অভিমান করে লিখেছেন, ‘মেরে ফেলব! ওকে ধন্যবাদ। আমাদের বাসায় তোমার আসার দরকার নেই।’

Dating App
শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »