মোহাম্মদ কামরুজ্জামান »

Dating App

অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির গবেষকদের তৈরি করোনা ভাইরাসের (কভিড-১৯) সম্ভাব্য টিকাটি প্রায় এক বছর পর্যন্ত রোগটির বিরুদ্ধে সুরক্ষা দিবে। টিকাটি উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান এস্ট্রাজেনেকা মঙ্গলবার এমনটা দাবি করেছে। বৃটিশ সরকারের সঙ্গে মিলে টিকাটি তৈরিতে অর্থায়ন করছে এস্ট্রাজেনেকা। টিকাটি উৎপাদনসহ এর বাণিজ্যিক কার্যক্রমেরও মালিকানা রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির। এ খবর দিয়েছে স্কাই নিউজ।

খবরে বলা হয়, অক্সফোর্ডের টিকাটির বর্তমানে মানবদেহে পরীক্ষা চলছে। পরীক্ষা শেষের আগেই যুক্তরাজ্যের পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের কয়েকটি দেশের সঙ্গে এটি সরবরাহের চুক্তি করেছে এস্ট্রাজেনেকা। সবমিলিয়ে বর্তমানে বিশ্বজুড়ে সম্ভাব্য টিকাটির ২০০ কোটি ডোজ সরবরাহের চুক্তি রয়েছে এস্ট্রাজেনেকার।

এস্ট্রাজেনেকার প্রধান নির্বাহী পাসক্যাল সরিয়ট মঙ্গলবার বেলজিয়ান রেডিওকে বলেন, খুব শিগগিরই টিকাটির প্রথম দফা ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা শেষ হতে যাচ্ছে বৃটেনে। এর মধ্যেই শুরু হয়ে গেছি তৃতীয় দফা পরীক্ষা। কোনো টিকা ব্যবহার উপযুক্ত ঘোষণার আগে এটাই সর্বশেষ ধাপ। এ ধাপে বিশ্বজুড়ে একাধিক দেশে কয়েক হাজার মানুষের উপর টিকাটির পরীক্ষা চালানো হয়। টিকাটির কার্যকরী ও নিরাপদ কিনা তা নিশ্চিত করা হয়।

প্রস্তুত হলে টিকাটি কী ধরনের সুরক্ষা দেবে এমন প্রশ্নের জবাবে সরিয়ট বলেন, আমরা মনে করি এটা এক বছরের মতো সুরক্ষা দেবে। তিনি আরো বলেন, সব ঠিক থাকলে আগামী আগস্ট বা সেপ্টেম্বরের মধ্যেই আমরা ক্লিনিক্যাল পরীক্ষার ফলাফল পেয়ে যাবো। আমরা এ সময়ে সমান্তরালে উৎপাদন চালিয়ে যাচ্ছি। আগামী অক্টোবরের মধ্যেই টিকাটি সরবরাহের জন্য প্রস্তুত থাকবে।
উল্লেখ্য, অক্সফোর্ডের টিকাটি এজেডডি১২২২ নামে পরিচিত। এই টিকাটি সর্দি-কাশির জন্য দায়ী একটি দুর্বল ভাইরাসের উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হচ্ছে। ওই ভাইরাসটি শিম্পাঞ্জিদের মধ্যে সংক্রমিত হয়ে থাকে। এছাড়া, এতে কভিড-১৯ রোগের জন্য দায়ী সারস-কভ-২ ভাইরাসের স্পাইক প্রোটিনের জেনেটিক উপকরণও রয়েছে। টিকাটি প্রবেশের কোনো গ্রহণকারীর দেহে ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ভাইরাসটিকে হামলা করবে বলে জানিয়েছেন গবেষকরা।

Dating App
শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »