মোহাম্মদ কামরুজ্জামান »

Dating App

শ্রদ্ধা-ভালোবাসায় বনানী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন ১৪ দলের সমন্বয়ক, আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

রবিবার (১৪ই জুন) সকাল দশটায় বনানী কবরস্থানে নেয়া হয় মোহাম্মদ নাসিমের মরদেহ। সেখানে দ্বিতীয় জানাজার পরে গার্ড অব অনার সম্মান প্রদর্শন করা হয় এই বীর মুক্তিযোদ্ধাকে। এরপর, মোহাম্মদ নাসিমের মরদেহে রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে তাঁদের সামরিক সচিবদ্বয় ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। তারপর, আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানান দলের নেতাকর্মীরা।

শ্রদ্ধা জানান বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন ও ব্যক্তি। তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানান সদ্য করোনাজয়ী ঐক্যফ্রন্ট নেতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীও। পরে, বেলা ১১টায় তার দাফন সম্পন্ন করা হয়। তারপরে পরিবারের পক্ষ থেকে কথা বলেন নাসিমের বড় ছেলে তানভির শাকিল জয়।

এর আগে, সোবহানবাগ মসজিদে প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। সোবহানবাগ মসজিদে তার মরদেহ নেয়া হলে শোকে বিহ্বল হয়ে পড়েন নেতাকর্মীরা। জানাজা শেষে শেষ বিদায় জানান তারা। তার আগে, সকাল সাড়ে আটটায় স্পেশালাইড হাসপাতালের হিমঘর থেকে মোহাম্মদ নাসিমের মরদেহ শেষবারের মত নেয়া হয় ধানমণ্ডির বাসায়। সেখানে পরিবারের সদস্যরা তাকে শেষ বিদায় জানান।

রক্তচাপজনিত সমস্যা নিয়ে পহেলা জুন রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম। ওই দিনই তার করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। ৫ই জুন ভোরে স্ট্রোক হলে দ্রুত অস্ত্রোপচার করে তাকে আইসিইউতে নেয়া হয়। গঠন করা হয় মেডিক্যাল বোর্ড। বৃহস্পতিবার রক্তচাপ অস্বাভাবিক হলে নেয়া হয় লাইফ সাপোর্টে।

সব চেষ্টা ব্যর্থ করে শনিবার (১৩ই জুন) বেলা ১১টা ১০ মিনিটে মারা যান নাসিম। তার মৃত্যুতে শোক জানান রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, জাতীয় সংসদের স্পিকার, প্রধান বিচারপতি, বিরোধীদলীয় নেতা, মন্ত্রিপরিষদের সদস্যরা ছাড়াও আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি, বিএনপিসহ বিভিন্ন দলের নেতারা।

Dating App
শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »