বার্তাবাংলা ডেস্ক »

নিজের মতো করে খবর পড়ছিলেন ইসরায়েলের রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিভিশন ‘চ্যানেল ওয়ান’-এর উপস্থাপিকা গেউলা ইভেন। হঠাৎ করেই একটি খবর পড়তে গিয়ে কেঁদে ফেলেন তিনি। কী সেই খবর, যা পড়ে কাঁদতে হলো?

বিবিসি অনলাইনের খবর জানাচ্ছে, খবরটি ছিল সেই উপস্থাপিকার নিজের অনুষ্ঠানটি বন্ধ হয়ে যাওয়ার। সংবাদ পাঠের মধ্যে হঠাৎ করেই দর্শকদের সেটা জানাতে হয় তাঁকে। এমন কষ্টের খবর পড়ার সময় তাই চোখের জল আটকাতে পারেননি তিনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিও ক্লিপে ফুটে উঠেছে ইসরায়েলের সরকারি টেলিভিশনের উপস্থাপিকার সেই মুহূর্তের চিত্র।

গেউলা ইভেন কাঁপা গলায় পড়ে চলেন, ‘একটা ব্রেকিং নিউজ আছে। পার্লামেন্টে বিবৃতি…। না, আসল কথাটা হলো, আজ রাতেই আমাদের খবরের অনুষ্ঠান শেষ হয়ে যাচ্ছে। এটা শেষ পর্ব। তাই অনুষ্ঠানের বাকি অংশ অপ্রাসঙ্গিক।’ অশ্রুসিক্ত চোখে তিনি বলতে থাকেন, ‘অনেক মানুষ চাকরি হারাবেন। আশা করি সবাই নতুন চাকরি খুঁজে পাবেন।’

ইসরায়েলি চ্যানেলটি যে কিছুদিনের মধ্যেই বন্ধ করে দেওয়া হবে, তার ইঙ্গিত আগেই পেয়েছিলেন কর্মীরা। কিন্তু সেটা কবে হবে আর কীভাবে হবে, কেউ জানতেন না। সব কর্মী ক্যামেরার সামনে হাজির হয়ে কাঁদতে কাঁদতে জাতীয় সংগীত গেয়ে চ্যানেলটির সম্প্রচার বন্ধ করে দেন।

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু চ্যানেল বন্ধের এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তাঁর দাবি, দেশটিতে চলমান সংস্কারের অংশ হিসেবে চ্যানেলটি বন্ধ করা হচ্ছে। এর বিকল্প প্রতিষ্ঠান তৈরি করা হবে। তবে রাজনৈতিক লড়াইয়ের কারণে তিনি এমনটি করেছেন বলে বিরোধীদের অভিযোগ।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »