ইসরাত পুনম »

লেবুর গুনের কোন শেষ নেই। রুপচর্চা থেকে শুরু করে স্বাস্থ্যরক্ষা পর্যন্ত সব ক্ষেত্রে লেবু অতুলনীয়। লেবুতে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন বি৬, বি১, এ এবং সি, ফলিক অ্যাসিড, ম্যাগনেসিয়াম, পেকটিন, ক্যালসিয়াম, পটাসিয়াম এবং ফসফরাস। শুধু লেবু নয় লেবুর খোসাতেও রয়েছে ক্যালসিয়াম, পটাসিয়াম, ভিটামিন সি এবং ফাইবার যা বিভিন্ন জয়েন্টের ব্যথা সারিয়ে তুলতে সাহায্য করে। লেবুর খোসা কীভাবে হাত, পা, ঘাড়ের ব্যথা সারিয়ে তোলে জেনে নিন সেই উপায়টি।

যা যা লাগবে:

১. একটি কাঁচের জার

All Media Link

২. দুটি লেবুর খোসা

৩. অলিভ অয়েল

যেভাবে তৈরি করবেন:

১. একটি জারে দুটি লেবুর খোসা কুচি করে নিন। তারপর এতে অলিভ অয়েল দিয়ে দিন।

২. অলিভ অয়েল সহ লেবু খোসা ২ সপ্তাহ ভিজিয়ে রাখুন।

৩. দুই সপ্তাহের পর এটি তৈরি হয়ে গেলে কিছু পরিমাণ অলিভ অয়েল ঢেলে অন্য একটি পরিষ্কার জারে ঢেলে নিন।

৪. এই তেলটি ব্যথার স্থানে আলতো হাতে ম্যাসাজ করে লাগিয়ে নিন। এরপর সেটি গজ দিয়ে পেঁচিয়ে রাখুন। এটি কয়েক ঘন্টা অথবা সারারাত রাখুন।

৫. গজের উপর প্লাস্টিকের প্যাকেট দিয়ে জড়িয়ে দিতে পারেন। আপনি এটি সন্ধ্যায় করতে পারেন এতে রাতে ব্যথা বৃদ্ধি পাবার সম্ভাবনা কম থাকবে।

৬. এছাড়া লেবুর খোসা কুচি করে (লক্ষ্য রাখবেন লেবুর উপরের অংশ যেন কুচি হয় সাদা অংশ যেনো নয়) ব্যথার স্থানে লাগিয়ে গজ দিয়ে পেঁচিয়ে রাখতে পারেন।

কার্যকারিতা:

লেবুর খোসায় রয়েছে অ্যান্টিসেপটিক যা শরীরের অভ্যন্তরীণ এবং বাহ্যিক উভয়ের ইনফেকশন দূর করে দেয়। লেবুর খোসায় থাকা উপাদান ধমনীতে রক্ত চলাচল বৃদ্ধি করে এবং ইনফ্লামেশন কমিয়ে থাকে। এতে ক্যালসিয়াম এবং ভিটামিন সি রয়েছে যা হাড় এবং মজবুত করতে সাহায্য করে। তাই লেবুর পাশাপাশি লেবুর খোসা খাওয়াও স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী।

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন »

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

আমি ইসরাত পুনম। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিষয়ে স্নাতকোত্তর করেছি। পড়াশোনার পাশাপাশি লেখালিখি করছি প্রায় চার বছর ধরে। বার্তাবাংলা’য় কাজ করছি লাইফস্টাইল সম্পাদক হিসেবে। আমার বিশেষ আগ্রহের ক্ষেত্র ফিচার, প্রযুক্তি আর লাইফস্টাইল। খুব ভালো লাগে ভ্রমণ, বইপড়া, আর ইন্টারনেট নিয়ে পড়ে থাকা :)

মন্তব্য করুন »